Beta

রিকশাচালককে পিটিয়ে বস্তায় ভরে ফেলে গেল সন্ত্রাসীরা

১৫ এপ্রিল ২০১৯, ২৩:২৫ | আপডেট: ১৫ এপ্রিল ২০১৯, ২৩:২৯

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা থেকে সোমবার হাত-পা ও চোখ বাঁধা বস্তাবন্দি গুরুতর আহত এক রিকশাচালককে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর নাম রহিম মণ্ডল (২৭)। তিনি গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার শ্রীফলাকাঠি এলাকার রাজ্জাক মণ্ডলের ছেলে।

কালিয়াকৈর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নজরুল ইসলাম ও আহত রহিমসহ স্থানীয়রা জানায়, কালিয়াকৈর দক্ষিণ হরিণহাটি এলাকার আসাদুল্লাহ বাবুর টিনশেড বাসায় বোনের সঙ্গে ভাড়া থেকে এলাকায় রিকশা চালান রহিম মণ্ডল। প্রতিদিনের মতো রোববার রাত ১০টার দিকে রিকশা চালিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। পথে স্থানীয় আরাফাত হোসেন, আলী ফকির ও হানিফসহ ১০ থেকে ১২ জন তাঁর পথ রোধ করে। পরে তারা রহিমকে অজ্ঞাত স্থানে তুলে নিয়ে যায়। সেখানে তাঁর হাত-পা ও চোখ বেঁধে বেধড়ক পেটায় এবং ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুই পায়ে কুপিয়ে ক্ষত-বিক্ষত করে। সোমবার ভোরে গুরুতর আহত রহিমকে বস্তাবন্দি করে হরিণহাটি এলাকায় রাস্তার পাশে ফেলে পালিয়ে যায় তারা।

সোমবার সকালে এলাকাবাসী হাত-পা ও চোখ বাঁধা রহিমকে বস্তাবন্দি অবস্থায় দেখতে পায়। খবর পেয়ে পুলিশ তাঁকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রহিমকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলাম।

Advertisement