Beta

মায়ের কবরের পাশে এনটিভির সাংবাদিক শফিক জামানকে দাফন

১৩ এপ্রিল ২০১৯, ২১:০৭

আজ শনিবার বাদ আসর জামালপুর শহরের দেওয়ানপাড়ার টেনিস ক্লাব মাঠে এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর জানাজা পড়ানো হয়। ছবি : এনটিভি

জামালপুর জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর দাফন সম্পন্ন হয়েছে। আজ শনিবার বাদ আসর জেলা শহরের দেওয়ানপাড়ার টেনিস ক্লাব মাঠে তাঁর জানাজা হয়।

জানাজায় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, সাবেক ভূমিমন্ত্রী রেজাউল করীম হিরা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী, জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর, পৌর মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহ, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওয়ারেছ আলী মামুনসহ জামালপুরে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এবং সর্বস্তরের মানুষ অংশগ্রহণ করেন। জানাজা শেষে জামালপুর পৌর কবরস্থানে শফিক জামানকে তাঁর মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হয়।

শফিক জামানের মৃত্যুতে এনটিভি পরিবারের পক্ষ থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে। এনটিভির চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহাজ্ব মোহাম্মদ মোসাদ্দেক আলী তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

এনটিভির স্টাফ করেসপনডেন্ট সাংবাদিক শফিক জামান লেবুর মরদেহে ফুলেল শ্রদ্ধা। ছবি : এনটিভি

স্বজনরা জানান, গতকাল শুক্রবার সকালে শহরের দেওয়ানপাড়া এলাকার বাসায় অসুস্থ বোধ করেন শফিক জামান। তাৎক্ষণিকভাবে তাঁকে জামালপুর জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বিকেলে কিছুটা সুস্থ বোধ করার তাঁকে বাসায় নিয়ে আসা হয়।

কিন্তু সন্ধ্যায় আবার অসুস্থবোধ করলে পরিবারের লোকজন ও সহকর্মীরা শফিক জামানকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। পথেই তিনি মারা যান বলে রাত সাড়ে ৯টায় হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। 

শফিক জামানের বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। তিনি এক ভাই, দুই বোনসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

সাংবাদিক শফিক জামান ছিলেন অকৃতদার। তিনি ঘনিষ্ঠজনদের কাছে ‘লেবু ভাই’ হিসেবেই সমধিক পরিচিত ছিলেন। কবি হিসেবেও খ্যাতি ছিল শফিক জামানের। এনটিভি ছাড়াও তিনি ঢাকা ট্রিবিউনের বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি ও দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের জেলা প্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

বিগত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশকে সাংবাদিকতার জগতে পা রাখা শফিক জামান কর্মজীবনে বিভিন্ন সময়ে ভোরের কাগজ, আজকের কাগজ, আমার দেশ, যায়যায়দিন, একুশে টেলিভিশন, বাংলা নিউজসহ বিভিন্ন জাতীয় গণমাধ্যমে দায়িত্ব পালন করেছেন। এর পাশাপাশি তিনি কবিতাকর্মীদের সংগঠন জাতীয় কবিতা পরিষদ জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশ উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন।

জামালপুর পৌর কবরস্থানে সাংবাদিকদের শফিক জামানকে তাঁর মায়ের কবরের পাশে দাফন করা হয়। ছবি : এনটিভি

Advertisement