Beta

চাঁদপুরে চারজন ভোটে, তিনজন বিনাভোটে জয়ী

২৫ মার্চ ২০১৯, ১১:৩২ | আপডেট: ২৫ মার্চ ২০১৯, ১২:০৪

চাঁদপুর জেলার সাতটি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। এদের মধ্যে চারজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে এবং তিনজন বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

গতকাল রোববার সকাল ৮টায় শুরু হয়ে ভোট গ্রহণ চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। ভোট গণনা শেষে রাতে সহকারী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে ফলাফল ঘোষণা করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শওকত ওসমান ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিন।

ফলাফলে দেখা যায়, চাঁদপুর সদর উপজেলায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকে নুরুল ইসলাম নাজিম দেওয়ান এক লাখ ১৩ হাজার ৮৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মিজানুর রহমান কালু ভূঁইয়া (স্বতন্ত্র) আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৫২৩ ভোট।

ফরিদগঞ্জ উপজেলার আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট জাহিদুল ইসলাম রোমান এক লাখ ৪৬ হাজার ৪৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। আর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী তোফায়েল আহম্মেদ ভূঁইয়া (স্বতন্ত্র) পেয়েছেন তিন হাজার ১৫৩ ভোট।

কচুয়া উপজেলার আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী নৌকা প্রতীকে শাহজাহান শিশির ৪৪ হাজার ৮৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। আর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফয়েজ আহমেদ স্বপন (স্বতন্ত্র) পেয়েছেন ৩২ হাজার ৬৩৬ ভোট।

শাহরাস্তি উপজেলায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ফরিদ উল্লাহ চৌধুরী ২১ হাজার ১৫৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। আর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মকবুল হোসেন পাটওয়ারী (স্বতন্ত্র) পেয়েছেন ২১ হাজার ৬৯ ভোট।

এ ছাড়া মতলব উত্তর উপজেলায় এম এ কুদ্দুছ, মতলব দক্ষিণ উপজেলায় এইচ এম গিয়াসউদ্দিন ও হাজীগঞ্জ উপজেলায় গাজী মাইনুদ্দিন- এই তিনজন আওয়ামী লীগ থেকে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগেই নির্বাচিত হয়েছেন।

নির্বাচনে সাতটি উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৪ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২৫ জনসহ মোট ৬২ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। সাত উপজেলায় মোট ভোটার ১৭ লাখ ২৭ হাজার ৩৩৪ জন। মোট ভোটকেন্দ্র ৬৪৮টি।

Advertisement