Beta

নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে নির্বাচিতদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান

১৬ মার্চ ২০১৯, ২০:০০ | আপডেট: ১৬ মার্চ ২০১৯, ২০:০৬

নিজস্ব সংবাদদাতা
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ শনিবার বিকেলে গণভবনে ডাকসু ও হল সংসদে বিজয়ীদের উদ্দেশে বক্তব্য দেন। ছবি : ফোকাস বাংলা

শিক্ষার্থীদের সমস্যা সমাধানে নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় সংসদ (ডাকসু) ও হল সংসদে নির্বাচিতদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে তিনি বলেন, যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তুলতে এবং সুষ্ঠু নির্বাচনী ধারা ফিরিয়ে আনতেই ডাকসু নির্বাচন।

আজ শনিবার বিকেলে গণভবনে ডাকসু ও হল সংসদে বিজয়ীদের সাক্ষাতের সময় এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ গড়ে তুলতে ডাকসুর নির্বাচিতদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এ সময় ডাকসু নেতাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব দেওয়ার শিক্ষা নেওয়ার সময় এখন।

আজ শনিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ছুঁয়ে সালাম করেন ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর। ছবি : পিআইডি

ডাকসুকে কার্যকর করতে এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতা চান ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর চায়ের আমন্ত্রণে গণভবনে সাক্ষাৎ করেন ২৮ বছর পর অনুষ্ঠিত ডাকসুর নির্বাচিত প্রতিনিধিরা। কেন্দ্রীয় সংসদের ২৫ নেতা এবং ১৮টি হল সংসদে নির্বাচিত ২৩৪ জন ছাত্র প্রতিনিধি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে  এ সময় শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। ক্যাম্পাস ও হলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ডাকসুর নেতারা এ সময় প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান।

আজ শনিবার গণভবনে ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুরের মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : বাসস

সাক্ষাতের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পা ছুঁয়ে সালাম করেন ডাকসুর নবনির্বাচিত সহসভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর। প্রধানমন্ত্রী পরম মমতায় তাঁর মাথায় হাত বুলিয়ে দোয়া করে দেন। এ সময় নুরও পরম শ্রদ্ধায় সেই হাত বুকের কাছে টেনে নেন এবং তাঁর জন্য দোয়া করতে বলেন।

সরকারপ্রধান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার দোয়া পেয়ে বেশ হাস্যোজ্জ্বল ছিলেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক ভিপি নুরুল হক নুর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও খুশি ছিলেন। পাশে দাঁড়িয়ে সেই দৃশ্য উপভোগ করেন ডাকসুর নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক (জিএস) ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী এবং ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন।

Advertisement