Beta

বসন্তবরণে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন পাবনা মেডিকেলের ছাত্রী

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২২:৩৬

বসন্তবরণে বন্ধুর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে নিহত পাবনা মেডিকেল কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী তানিজা হায়দার। ছবি: সংগৃহীত

শিক্ষাজীবনে কখনো দ্বিতীয় হননি। মেডিকেলেও তাঁর ফলাফল ভালো। ফাল্গুনের প্রথম দিন বসন্তকালকে বরণ করতে বন্ধুর সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরতে হলো তানিজা হায়দারকে (২২)। পাবনা মেডিকেল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন তানিজা।

আজ বুধবার সন্ধ্যায় পাবনা শহরের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল সংলগ্ন মহেন্দ্রপুরে ট্রাক চাপায় প্রাণ হারান এই মেধাবী শিক্ষার্থী।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওবায়দুল হক জানান, বসন্তবরণ উপলক্ষে বন্ধুর সঙ্গে মোটরসাইকেলে করে বিকেলে ঘুরতে বের হয়ে বাসায় ফেরার পথে মেডিকেল ছাত্রী নিহত হয়েছেন। সন্ধ্যা ৭টার দিকে পাবনা বাস টার্মিনাল এলাকায় এলে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে যান তানিজা। এ সময় পেছন দিক থেকে দ্রুতগতির একটি ট্রাক তাঁর ওপর দিয়ে চলে গেলে পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

ওসি ওবায়দুল হক আরো জানান, ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। তবে চালক ও তাঁর সহকারী পালিয়ে গেছে।

তানিজা নিহত হওয়ার খবরে পাবনা মেডিকেল কলেজ ক্যম্পাসে শোকের ছায়া নেমে আসে। খবর শুনে সহপাঠীদের অনেকেই কান্নায় ভেঙে পড়েন।

তানিজা রাজশাহী জেলার লক্ষ্মীপুর কাঁচাবাজার এলাকার বাসিন্দা ও বন বিভাগের কর্মকর্তা শাম্মাক হায়দারের মেয়ে। এ ঘটনায় আহত তানিজার বন্ধু ইমরান চৌধুরী (২৪) নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলার বাসিন্দা। তিনি পাবনা মেডিকেল কলেজের পঞ্চম বর্ষের ছাত্র।

Advertisement