Beta

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শুল্ক গোয়েন্দা কার্যালয়ে কাদের

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৮:৪৬

আদালত প্রতিবেদক
গ্রেপ্তারের পর ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ কাদের। ছবি : সংগৃহীত

প্রায় ৪২২ কোটি টাকা পাচারের মামলায় ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ কাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের হেফাজতে নিয়েছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা অধিদপ্তরের মো. আনোয়ার হোসেন আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যানকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যান।

আনোয়ার হোসেন বিষয়টি এনটিভি এনটিভি অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গতকাল সোমবার ঢাকার মহানগর হাকিম মোহাম্মদ মিল্লাত হোসেনের আদালতে ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান কাদেরকে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে বিচারক তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৩১ জানুয়ারি ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান কাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। এর আগের দিন বিকেলে রাজধানীর কাকরাইল থেকে ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যানকে গ্রেপ্তার করে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের সদস্যরা।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, গত ৩০ জানুয়ারি রাজধানীর চকবাজার থানায় রিমেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেড, ক্রিসেন্ট লেদার প্রোডাক্টস লিমিটেড ও ক্রিসেন্ট ট্যানারিজ লিমেটেডের পক্ষ থেকে প্রায় ৯১৯ কোটি টাকা পাচারের দায়ে ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান আবদুল কাদের, চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজসহ মোট ১৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। আবদুল আজিজ সম্পর্কে এম এ কাদেরের ভাই। তিনি রিমেক্স ফুটওয়্যারের চেয়ারম্যান।

তিনটি মামলার মধ্যে আজ একটি মামলায় ক্রিসেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যানকে আটক দেখানো হয়েছে এবং বাকি দুটি মামলায় পরবর্তী সময়ে গ্রেপ্তার দেখানো বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

Advertisement