Beta

৬ মার্চ জাতীয় পাট দিবস পালিত হবে

২৪ জানুয়ারি ২০১৯, ১৯:৫২

নিজস্ব প্রতিবেদক
পাট দিবস নিয়ে কথা বলেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। পুরোন ছবি : সংগৃহীত

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেছেন, ‘বাংলাদেশকে আবারও সোনালি আঁশের দেশ হিসেবে রূপান্তর করে পাটের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে আগামী ৬ মার্চ তৃতীয় বারের মতো পালিত হবে জাতীয় পাট দিবস।’

‘জাতীয় পাট দিবস ২০১৯’ পালন উপলক্ষে গঠিত জাতীয় কমিটির প্রতিনিধিদের সাথে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে এক মতবিনিময় সভায় এ তারিখ নির্ধারণ করা হয়।  

বৈঠকে  বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. মিজানুর রহমান, পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শামসুল আলম, বিজেএমসির চেয়ারম্যান শাহ মো. নাসিম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, তথ্য মন্ত্রণালয়, বিটিভি, বাংলাদেশ বেতার, তথ্য অধিদপ্তর, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিসহ বিজেএ, বিজেএসএ, বিজেজিএ ও বিজেএমএর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন ।

সভায় মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশকে আবারও সোনালি আঁশের দেশ হিসেবে রূপান্তর করে পাটের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে আগামী ৬ মার্চ তৃতীয় বারের মতো পালিত হতে যাচ্ছে জাতীয় পাট দিবস। বিদেশে বাংলাদেশের বিভিন্ন কূটনৈতিক মিশনসহ সারাদেশ নানা কর্মসূচি আয়োজনের মাধ্যমে মহাসমারোহে দিনটিকে উদযাপন করতে যাচ্ছে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। বর্ণাঢ্য এ দিবসের আয়োজনে জেলা শহর থেকে পাট চাষিসহ পাটের সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এর সাথে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। শোভাযাত্রা, ব্যানার, পোস্টারসহ পাট চাষ সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোতে বিশেষ আয়োজন থাকবে। পাট মিল এলাকাগুলোতে আলোকসজ্জাসহ তোরণ নির্মাণ করা হবে। রাজধানীতে আকর্ষণীয় শোভাযাত্রা ছাড়াও বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আগামী  ৬-৯ মার্চ অনুষ্ঠিত হবে তিন দিনব্যাপী পাটজাত পণ্যের মেলা। প্রধানমন্ত্রী মেখ হাসিনা এ মেলার উদ্বোধন করবেন।

পাটমন্ত্রী বলেন, ‘বর্তমান সরকারের গৃহীত নীতিমালা ও পরিকল্পনাকে কাজে লাগিয়ে পাট ও বস্ত্র খাতের রপ্তানি বাজার সম্প্রসারণ, বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন, পরিবেশ রক্ষা এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত করার ক্ষেত্রে এ মন্ত্রণালয় সফল হবে।’

Advertisement