রামগড়ে জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) নেতাকে গুলি করে হত্যা

১৪ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:৫৫

দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হন মোহন ত্রিপুরা। ছবি : এনটিভি

খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) গ্রুপের এক নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। উপজেলা সদর থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে জগন্নাথপাড়া এলাকায় আজ সোমবার সন্ধ্যায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম মোহন ত্রিপুরা (২৫)।

স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, এমএন লারমাপন্থী জনসংহতি সমিতির রামগড় উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক ও কালেক্টর ছিলেন মোহন ত্রিপুরা। ওই এলাকার তাঁর স্বজন প্রবেশ ত্রিপুরার বাড়িতে অবস্থানকালে একদল অস্ত্রধারী লোক ঘরে ঢুকে খুব কাছ থেকে গুলি চালালে তিনি ঘটনাস্থলেই নিহত হন। পরে পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দারা তাঁকে উদ্ধার করে রামগড় হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার জন্য প্রতিপক্ষ ইউপিডিএফকে দায়ী করা হলেও সংগঠনটি তা অস্বীকার করেছে। পুলিশ জানিয়েছে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিবাদমান দুটি গ্রুপের দ্বন্দ্বে খুনের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।

স্থানীয়রা জানান, দুর্বৃত্তরা ঘটনার পর ফাঁকা গুলি করতে করতে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

রামগড় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)তারেক মোহাম্মদ হান্নান জানান, নিহতের শরীরে পাঁচটি গুলি লেগেছে। সক্রিয় চাইনিজ এসএমজির গুলি দিয়ে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে কয়েকটি খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে ইউপিডিএফ এই হত্যা ঘটিয়ে থাকতে পারে বলে তিনি যোগ করেন। তবে এটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।