Beta

ঝিনাইদহ-৪ আসন উদ্ধার করতে চান স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা ফিরোজ

২০ নভেম্বর ২০১৮, ১৬:২৭

নিজস্ব প্রতিবেদক
জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ। ছবি : সংগৃহীত

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঝিনাইদহ-৪ (কালীগঞ্জ ও সদরের একাংশ) আসনটি উদ্ধার করতে চান জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ। লড়তে চান ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে। এ জন্য বিএনপির মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন তিনি।

আগামী নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন পেলে ২০০৮ সালে হারানো এই আসনটি বিপুল ভোটের ব্যবধানে উদ্ধার করতে পারবেন বলে বিশ্বাস করেন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুল ইসলাম ফিরোজ।

১৯৯১ সালের পঞ্চম জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে ২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত ঝিনাইদহ-৪ আসনটি ছিল বিএনপির দখলে। ২০০৮ সালে আসনটি চলে যায় আওয়ামী লীগের হাতে। সর্বশেষ ২০১৪ সালে বিনা ভোটে জয় পান বর্তমান সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার।

সাইফুল ইসলাম ফিরোজ নব্বইয়ের দশকের শুরুতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াকালে ছাত্রদলের রাজনীতিতে যোগ দেন। জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাহাবুদ্দীন লাল্টু-আজিজুল বারী হেলাল কমিটির প্রচার সম্পাদক ছিলেন তিনি। পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন ফিরোজ। পরে তিনি কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্বও পালন করেন। ঝিনাইদহের এই কৃতী সন্তান বর্তমানে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

কালীগঞ্জ উপজেলা ও সদরের একাংশ নিয়ে গঠিত ঝিনাইদহ-৪ আসনের অন্তর্ভুক্ত এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানে পৃষ্ঠপোষকতাসহ অংশগ্রহণ করে আসছেন ফিরোজ। এ ছাড়া গত ১০ বছরে সরকারের বিভিন্ন নির্যাতন, হামলা ও মামলায় নেতাকর্মীদের পাশে থেকেছেন তিনি।

সাইফুল ইসলাম ফিরোজ বলেন, ‘দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান যদি আমাকে প্রার্থী হিসেবে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করার সুযোগ দেন, তাহলে হারানো এ আসন আমি পুনরুদ্ধার করতে পারব। দলীয় মনোনয়ন পেলে বিজয়ী হয়ে আসনটি দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার হাতে তুলে দিতে পারব ইনশাআল্লাহ।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement