Beta

পাবিপ্রবিতে সব ধরনের মিছিল-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা

১০ নভেম্বর ২০১৮, ২০:৪৮

অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণার পর এবার পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পাবিপ্রবি) সব ধরনের মিটিং, মিছিল, সভা ও সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ শনিবার বিকেলে পাবিপ্রবির জনসংযোগ দপ্তরের সহকারী পরিচালক মো. ফারুক হোসেন চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘গত ৫ নভেম্বর সোমবার অনুষ্ঠিত রিজেন্ট বোর্ডের ৪৭তম জরুরি সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক বিশ্ববিদ্যালয়ের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে আপাতত সব ধরনের মিটিং, মিছিল, সভা ও সমাবেশ বন্ধ ঘোষণা করা হলো। এ আদেশ পাবিপ্রবির সব ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীর জন্য প্রযোজ্য।’

এ বিষয়ে পাবিপ্রবির শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও রিজেন্ট বোর্ডের সদস্য আওয়াল কবির জয় জানান, ক্যাম্পাসে স্বাভাবিক পরিস্থিতি বজায় রাখতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

গত ৫ নভেম্বর ৬ দফা দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে আন্দোলন করে। একপর্যায়ে পাবিপ্রবির উপাচার্য সব অনুষদের ডিন, বিভাগের চেয়ারম্যান ও রিজেন্ট বোর্ডের সদস্যদের সঙ্গে এক জরুরি সভার আয়োজন করেন। এ সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থিতিশীল পরিবেশ ঠিক করতে অর্নিদিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। একই সঙ্গে উপাচার্য ও শিক্ষকদের সাথে খারাপ আচরণ ও উপাচার্যকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগে ১০ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তির বিষয়ে পাবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম রোস্তম আলী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থিতিশীল পরিস্থিতি বজায় রাখতে ডিন ও চেয়ারম্যানদের সঙ্গে আলোচনা করে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সামনে ভর্তি পরীক্ষা, পরিস্থিতি বুঝে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement