Beta

সভা-সমাবেশ না করতে ইসির নির্দেশ

১০ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:৪৬ | আপডেট: ১০ নভেম্বর ২০১৮, ২০:১৮

নিজস্ব সংবাদদাতা
আজ শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ। ছবি : এনটিভি

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রতীক বরাদ্দের আগে যাতে আর কোনো রাজনৈতিক দল সভা-সমাবেশ না করতে পারে সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আজ শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনের নিজ কার্যালয়ে নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, পুলিশ কর্তৃপক্ষকে কড়া নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে যাতে ভবিষ্যতে আর কোনো রাজনৈতিক দল সভা-সমাবেশ না করতে পারে।

ইসি সচিব বলেন, যে তারিখ থেকে তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে তারপর থেকে প্রচার-প্রচারণা, মিছিল-মিটিং নিষিদ্ধ। তারপরও প্রতীক বরাদ্দের আগে নির্বাচনকে ঘিরে যদি কোনো দল কিংবা ব্যক্তি নির্বাচনী প্রচারণা চালান তাহলে এটা আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে।

হেলালুদ্দীন আহমদ আরো বলেন, আমরা এরই মধ্যে সব রির্টানিং কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দিয়েছি যাতে করে প্রয়োজনীয় সংখ্যক এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করার জন্য। এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটরা আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে কি না সেটা দেখভাল করবেন।

নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত

নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, নির্বাচন কমিশন একটি তফসিল দিয়েছে। এখনও পর্যন্ত নির্বাচনের তারিখ পেছানোর কোনো পরিকল্পনা নেই ইসির। তবে সবগুলো দল যদি নির্বাচন পেছানোর ব্যাপারে একমত হয় তাহলে কমিশন সিদ্ধান্ত নিবে।

জোটগতভাবে নির্বাচন করতে আগামীকালই ইসিকে জানাতে হবে

এই ব্যাপারে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, আগামীকাল রোববারের ভেতরে যদি কোনো নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল জোটগতভাবে নির্বাচন করার কথা ইসিকে না জানাতে পারে সেক্ষেত্রে তারা একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটগতভাবে আর নির্বাচন করতে পারবে না। এরপরও সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে হলে তাদের দলের নিজস্ব প্রতীকে নির্বাচন করতে হবে। এটা কিন্তু গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশের (আরপিও) বাধ্যবাধকতা। তারপরও যদি তারা কমিশনের কাছে দরখাস্ত করেন সেক্ষেত্রে কমিশন ভেবে দেখবে তাদেরকে সময় দেবে কি দেবে না।

মনোনয়ন ফরম কেনাকে কেন্দ্র করে মৃত্যু, জানে না ইসি

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের আদাবরে আজ সকালে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় একটি পিকআপ ভ্যানের চাপায় দুই কিশোর নিহত হয়। এতেও আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে কিনা জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, সেখানকার মৃত্যুর ঘটনা আমাদেরকে কেউ জানায়নি কিংবা নজরে আসেনি। সাংবাদিকদের কাছেই প্রথম শুনলাম।

মনোনয়ন ফরম কেনার জন্য জনদুর্ভোগ

আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কেনা নিয়ে ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ের আশপাশে জনদুর্ভোগ হচ্ছে, এই ব্যাপারে আপনারা কী বলবেন- এমন প্রশ্নে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ভোট একটি উৎসব। প্রচার-প্রচারণা, নমিনেশন পেপার নেওয়া, জমা দেওয়া এটি একটি নির্দিষ্ট সীমানার মধ্যে হচ্ছে। এর ফলে আচরণবিধি লঙ্ঘন হচ্ছে- এটা আমাদের কাছে প্রতীয়মান হচ্ছে না।

ঐক্যফ্রন্টের রাজশাহীর সভাবেশ

তফসিল ঘোষণার পর সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ হলেও রাজশাহীতে ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশ হওয়া সম্পর্কে জানতে চাইলে ইসি সচিব বলেন, যেহেতু তারা আগে থেকেই অনুমতি নিয়েছে এবং নেতৃবৃন্দ রাজশাহীতে অবস্থান করছিলেন, স্বাভাবিকভাবেই নির্বাচন কমিশনের তরফ থেকে তাদের এই মৌখিক অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

যেখানে ইভিএমের কেন্দ্র সেখানে সেনাবাহিনী

আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যেসব কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে সেসব কেন্দ্র সেনাবাহিনীকে দিয়ে পরিচালনা করার পরিকল্পনা করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ ব্যাপারে ইসি সচিব বলেছেন, ‘আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে, যেসব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে, সেসব কেন্দ্রে কারিগরি সহায়তা ও নিরাপত্তার জন্য সেনাবাহিনী নিয়োগ করা হবে। তবে ইসিতে এখনো এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়নি। তারা সম্মতি দিলে আমরা তাদের ব্যবহার করব।’

কেন এই পরিকল্পনা করা হচ্ছে- এমন প্রশ্নে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, কারণ এটা একটা টেকনিক্যাল বিষয়। এ ছাড়া আস্থারও একটি বিষয় আছে। এসব বিষয়কে ভেবে আমরা এই ধরনের পরিকল্পনার কথা ভাবছি।

ইসি সচিব আরো বলেন, আমরা যদি সেনাবাহিনীকে অনুরোধ করি এবং তারা যদি রাজি হয় তাহলে কিন্তু ইভিএম ব্যবহারের কেন্দ্রগুলোতে তাদের দ্বারা পরিচালনা করা হবে। তবে এই বিষয়ে আরো বিস্তারিত আলোচনা হবে। নির্বাচন কমিশনাররা এই সিদ্ধান্ত নিবেন।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ওই সমস্ত কেন্দ্রগুলোয় যেসব সেনাবাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হবে তাদের আগে থেকে ইভিএম বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। তারপর তাদের কেন্দ্রগুলোতে নিয়োগ দেওয়া হবে।

কেন এই পরিকল্পনা করা হচ্ছে- এমন প্রশ্নে ইসি সচিব বলেন, কারণ এটা একটা টেকনিক্যাল বিষয়। এ ছাড়া এটি আস্থারও বিষয়। এসব বিষয়কে ভেবে আমরা এই ধরণের পরিকল্পনার কথা ভাবছি। তবে ইভিএম কেন্দ্রে সেনাবাহিনী মোতায়নের আগে তাদেরকে ইভিএম বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement