Beta

ময়মনসিংহ সদরে নৌকা চান অ্যাডভোকেট খোকা

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৯:২৫

ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবী জহিরুল হক খোকা। ছবি : সংগৃহীত

ময়মনসিংহ-৪ (সদর) আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বিশিষ্ট আইনজীবী জহিরুল হক খোকা।

দলীয় নেতাকর্মীদের দাবি, ‘কোঠারীভুক্ত’ রাজনীতির পরিবর্তন ও ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে নয়া মেরুকরণের রূপকার প্রবীণ আইনজীবী জহিরুল হক খোকা। ছাত্রাবস্থায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হল (সাবেক ইকবাল হল) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি জহিরুল হক খোকা ১৯৬১ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন। পরের বছর ময়মনসিংহ জেলা বারে যোগদানের মাধ্যমে আইন পেশা শুরু করেন।

অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকা ৩০ বছর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি, সিনিয়র সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৯৬ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত পাবলিক প্রসিকিউটরের দায়িত্ব পালন করেছেন। ১৯৮২ সালে ময়মনসিংহ জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও দুইবার সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিল ট্রাইব্যুনালের সাবেক চেয়ারম্যান জহিরুল হক খোকা জেলা আইনজীবী সমিতির দুইবার সংবর্ধনাও পেয়েছেন।

আওয়ামী লীগের খারাপ সময়ে তিনি নির্যাতিত দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষকে আইনী সহায়তা দিয়েছেন বলে দাবি করেন জহিরুল।

ময়মনসিংহ জেলা পরিষদের সাবেক প্রশাসক জহিরুল হক জেলা ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল পরিষদের (১৯৮২-১৯৯৬) সভাপতি ছিলেন ও সামাজিক সংগঠনগুলোর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রয়াত বিশেষ সহকারী মাহবুবুল হক শাকিলের বাবা জহিরুল হক খোকা এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘চাওয়া পাওয়ার কিছু নাই। দলের মনোনয়ন পেলে জনগণের ম্যান্ডেট নিয়ে বিজয়ী হয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার কাজে আত্মনিয়োগ করতে চাই।’ অতীতের জাতীয় নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিজয়ে তাঁর গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে বলে জানান তিনি।

বর্তমানে কোন্দলে জর্জরিত ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ। এই অবস্থায় খোকাকে মনোনয়ন দিলে দলকে ঐক্যবদ্ধ করে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার আশাবাদ তাঁর। তিনি মনোনয়ন পাচ্ছেন এমনটাই আশা করছেন দলের নেতাকর্মীরা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement