Beta

‘মহাজোটে সফল হয়েছি, যুক্তফ্রন্টেও সফল হব’

০৮ নভেম্বর ২০১৮, ২৩:৩৫

সাবেক সাংসদ ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এইচ এম গোলাম রেজা বৃহস্পতিবার সাতক্ষীরার শ্যামনগর বাসটার্মিনাল মাঠে আয়োজিত সমাবেশে বক্তব্য দেন। ছবি : এনটিভি

ঢাক-ঢোল পিটিয়ে ব্যাপক প্রচার চালানো হলেও সাতক্ষীরার শ্যামনগরে যুক্তফ্রন্টের প্রথম সমাবেশে যোগ দিতে পারেননি জোটের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। সেই সমাবেশে ঢাকা থেকে যুক্তফ্রন্টের আরো যেসব নেতার আসার কথা ছিল তাদেরও কেউই আসেননি।

ফলে বৃহস্পতিবার বিকেলে সাবেক সাংসদ ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এইচ এম গোলাম রেজা সভাপতির বক্তব্য দিয়ে শেষ করেন মহাসমাবেশ। শ্যামনগর বাসটার্মিনাল মাঠে ওই সমাবেশ হয়।

সমাবেশে গোলাম রেজা বলেন, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যুক্তফ্রন্টের নেতাদের হেলিকপ্টার উড়তে দেওয়া হয়নি। এটি একটি ষড়যন্ত্র দাবি করে তিনি বলেন, আগেও দুই বার হেলিকপ্টার নিয়ে তাঁর শ্যামনগর আসার কথা ছিল। তখনো ষড়যন্ত্রের মুখে তা বন্ধ হয়ে যায়।

বিকল্পধারার নতুন এই নেতা বলেন, মানুষ এখন শান্তিতে ঘুমাতে পারে না। তাদের শান্তিতে বাঁচতে দেওয়া হয় না।

ষড়যন্ত্রের দরকার কি উল্লেখ করে জাতীয় পার্টি থেকে বহিষ্কৃত সাবেক হুইপ গোলাম রেজা বলেন, আজ সন্ধ্যা ৭টার পর থেকে শ্যামনগর-কালীগঞ্জে কোনো অত্যাচার করা চলবে না। ডিসেম্বরে ভোট। তাই ফাইনাল খেলার জন্য প্রস্তুত থাকুন।

ঢাকা থেকে যুক্তফ্রন্টের নেতাদের আসতে না দেওয়ার ষড়যন্ত্রের কথা আবারও উল্লেখ করে গোলাম রেজা বলেন, ‘তাদের ভয় দেখিয়ে বলা হয়েছে, শ্যামনগরে গেলে গুলি হবে, আন্দোলন হবে, তাই যাবেন না। এ কথা শুনে যুক্তফ্রন্ট ও বিকল্পধারার চেয়ারম্যান ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, শিডিউল ঘোষণার পর চারদিন শ্যামনগরে থেকে আমি প্রচারণা চালাতে চাই। তুমি বলে দিও।’

গোলাম রেজা বলেন, মহাজোট করেছিলাম, সফল হয়েছি। এবার যুক্তফ্রন্ট করছি, সফল হব। আটটি দল নিয়ে আমরা জোট করেছি। এই জোট নিয়ে ভোট করব। প্রধানমন্ত্রীর সাথে সংলাপে আমি সাত দফা তুলে ধরেছিলাম। এর মধ্যে ছিল শ্যামনগরের সব মামলা তুলে নিতে হবে। তিনি রাজি হয়েছেন।

সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত কালীগঞ্জের কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান কে এম মোশাররফ হোসেনের মেয়ে সাফিয়া পারভিন বলেন, আমার বাবা হত্যার বিচার পেতে গোলাম রেজাকে এমপি হিসেবে দেখতে চাই।

সমাবেশে আরো বক্তব্য দেন আনসার ভিডিপির সাবেক কর্মকর্তা শাহাদাত হোসেন, কাশিমারির মুজিবর রহমান, কৃষ্ণনগরের আইউব হোসেন, এমএ গনি, হাফেজ বেল্লাল প্রমুখ।

এদিকে আজ এক বিবৃতিতে যুক্তফ্রন্টের চেয়ারম্যান ও বিকল্পধারা বাংলাদেশের সভাপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী অভিযোগ করেছেন, কয়েক দিন আগে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে যুক্তফ্রন্টের সংলাপে তিনি আসন্ন নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রতিষ্ঠার স্বার্থে আমাদের দৃঢ়ভাবে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, দেশের যেকোনো জায়গায় বিরোধীদল হিসেবে আমরা গণসংযোগ বা সভা-সমাবেশ করতে পারব। আজকে সকালে যুক্তফ্রন্ট নেতৃবৃন্দ ও বিভিন্ন টিভি চ্যানেলের সাংবাদিকদের যে হেলিকপ্টারে করে ঢাকা থেকে সাতক্ষীরা যাওয়ার কথা ছিল সেটি হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে উড়তে দেওয়া হয়নি। এতে আমরা জনসভায় যোগ দিতে পারি নাই।

বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ‘এটা নিশ্চিত, প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সরকার এই জনসভা বন্ধ করার ব্যবস্থা করেছে। আমরা সরকারের এই গণতন্ত্রবিরোধী পদক্ষেপের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। এটা লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড গঠনের প্রতিশ্রুতির পরিষ্কার বরখেলাপ।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement