Beta

শুধু বলছিলেন, আমার সব শেষ হয়ে গেছে

০৮ অক্টোবর ২০১৮, ২২:৪৪

শেরপুর জেলা শহরের নিউমার্কেটে এই নারীকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। ছবি : এনটিভি

মার্কেটের বারান্দায় পড়ে ছিলেন এক মধ্যবয়স্ক নারী। মাঝেমধ্যে উঠে বসার চেষ্টা করছিলেন তিনি। কিন্তু পারছিলেন না। হাতে স্যালাইন দেওয়ার জন্য ‘ক্যানোলা’ লাগানো। তা থেকে রক্ত বেরিয়ে ভেসে যাচ্ছিল মার্কেটের বারান্দা। আশপাশের লোকজন কথা বলতে চাইলেও কথা বলছিলেন না। শুধু বলছিলেন, ‘আমার সব শেষ হয়ে গেছে।’

গতকাল রোববার দিবাগত রাতে শেরপুর জেলা শহরের নিউমার্কেটে এ ঘটনাটি ঘটে।

মার্কেটের দোকানিরা জানান, দুদিন ধরে সেখানে পড়ে ছিলেন ওই নারী। শেষে অবস্থা দেখে তাঁরা সমাজসেবা অধিদপ্তরকে বিষয়টি জানান। পরে রাতেই সমাজসেবা অধিদপ্তরের লোকজন এসে তাঁকে নিয়ে গিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করান।

এক দোকানি বলেন, ‘দুদিন ধরে ওই মহিলা মার্কেটের বারান্দাতে পড়ে আছেন। বিড়বিড় করে যা কথা বলেন তাতে মনে হয় তিনি কোনো ভালো পরিবারের। তিনি বারবার বলছিলেন, আমার সবকিছু শেষ হয়ে গেছে। লোকজন খাবার দিয়েছেন, কিন্তু খাবারও তেমন খাননি। এ ছাড়া তাঁর হাতে লাগানো ক্যানোলা থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হচ্ছিল। শেষে উপায় না দেখে বিষয়টি জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরকে জানাই।’ 

এ ব্যাপারে জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপপরিচালক (ডিডি) আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘খবর পাবার পর আমরা পুলিশের সহায়তায় মহিলাকে শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছি। যদিও মহিলার বয়স অনুযায়ী বিষয়টি আমাদের সোশ্যাল ওয়েলফেয়ারের আওতার বাইরে। তবু আমরা তাঁর হাসপাতালের চিকিৎসা ও ওষুধপত্রের খরচের দায়িত্ব নিয়েছি। পরবর্তী সময়ে অবস্থা বুঝে আমরা ব্যবস্থা নেওয়ার চেষ্টা করব।’

আমিনুল ইসলাম আরো বলেন, ‘মহিলার নাম পরিচয় এখনো আমরা জানতে পারিনি। আজ সকালেও আমরা চেষ্টা করেছি জানতে। কিন্তু তাঁর অসুস্থতার কারণে তাঁকে বেশি প্রশ্ন করা সম্ভব হয়নি।’

এদিকে, হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ওই নারীর পায়ে ইনফেকশন রয়েছে। এ ছাড়া তাঁর অন্য শারীরিক সমস্যাগুলোও নির্ধারণের চেষ্টা করা হচ্ছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement