Beta

খালেদা জিয়ার চিকিৎসা

মেডিকেল বোর্ড নিয়ে বিএনপির অসন্তোষ

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১৪

নিজস্ব সংবাদদাতা

কারাবন্দি খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত মেডিকেল বোর্ডে তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্ত না করা সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই ইঙ্গিত বলে মন্তব্য করেছে বিএনপি।

আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলটির পক্ষে সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ মন্তব্য করেন।

বোর্ডে চিকিৎসকদের বাছাইয়ে পেশাগত দক্ষতার চেয়ে সরকারদলীয় আনুগত্যকেই অধিক গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে দাবি করেছেন রুহুল কবির রিজভী।  তিনি বলেন, ‘আওয়ামী লীগের প্রতি অনুগত চিকিৎসকদের নিয়ে গঠিত মেডিকেল বোর্ডে যথাযথ চিকিৎসা এবং তাঁর (খালেদা জিয়া) শারীরিক পর্যবেক্ষণ সঠিকভাবে প্রতিফলিত হবে না। কারণ সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ড সরকারের নির্দেশ মতই কাজ করবে।’

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘গুরুতর অসুস্থ বেগম জিয়ার চিকিৎসা দেওয়ার জন্য তাঁর ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের অন্তর্ভুক্ত করে মেডিকেল বোর্ড গঠনসহ ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি করার অনুরোধ জানিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছে বিএনপির উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও তাঁদের আশ্বাস দিয়েছিলেন যে, বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার। কিন্তু কার্যত সেটির প্রতিফলন ঘটেনি। কর্তৃপক্ষ বিষয়টি আমলে না নেওয়ায় এটাই প্রমাণ হয় সরকার বেগম জিয়াকে সুচিকিৎসা না দিয়ে তিলে তিলে নিঃশেষ করতে চায়। এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই ইঙ্গিতবাহী।’

রিজভী বলেন, ‘গণমাধ্যমের প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডে বিএসএমএমইউ-এর চিকিৎসকরাই রয়েছেন। বেগম খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে রাখা হয়নি। যা বিদ্বেষপ্রসূত মনোভাবেরই বহিঃপ্রকাশ। কারাকর্তৃপক্ষের মৌখিক বার্তা অনুযায়ী মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য দেশনেত্রীর ব্যক্তিগত পাঁচজন চিকিৎসকের নাম দলের পক্ষ থেকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত না করায় বিএনপি শুধু উদ্বিগ্নই নয়, বরং দেশনেত্রীকে চিকিৎসা না দিয়ে তাকে গুরুতর শারীরিক ক্ষতির দিকে ঠেলে দেয়ার জন্য এটি সরকারের অশুভ পরিকল্পনারই অংশ বলে দল মনে করে।’

বিএনপির এই মুখপাত্র অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকার কর্তৃক গঠিত মেডিকেল বোর্ডে অন্যতম সদস্য ডা. আবু জাফর চৌধুরী নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি প্রার্থী। তিনি দলীয় প্রার্থী হিসেবে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ব্যাপক নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। অপর সদস্য অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক আওয়ামী লীগ সমর্থিত চিকিৎসক সংগঠন স্বাচিপ (স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ) বিএসএমএমইউর ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক। এছাড়াও অধ্যাপক ডা. তারেক রেজা আলী আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য।’

বেগম জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের মেডিকেল বোর্ডে অন্তর্ভুক্ত করতে হবে দাবি জানিয়ে রিজভী বলেন, ‘কর্তৃপক্ষের অবহেলায় যদি বেগম খালেদা জিয়ার কোনও ক্ষতি হয়, সেজন্য এর সম্পূর্ণ দায় বর্তাবে সরকারের ওপর।’

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন,চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. ফরহাদ হালীম ডোনার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement