Beta

রাশেদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন ১০ অক্টোবর

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:০৮

আদালত প্রতিবেদক

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের মামলায় কোটা আন্দোলনের নেতা রাশেদ খানের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন আগামী ১০ অক্টোবর দাখিল করতে বলেছেন আদালত। আজ  মঙ্গলবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম সাইফুজ্জামান হিরো এ আদেশ দেন।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান এনটিভি অনলাইনকে জানান, আজ এই মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের কথা ছিল। কিন্তু মামলার তদন্ত কর্মকর্তা প্রতিবেদন দাখিল না করায় বিচারক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন তারিখ ধার্য করেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়,গত ১ জুলাই রাজধানীর শাহবাগ থানায় মামলাটি দায়ের করেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক আল নাহিয়ান খান জয়।

এজাহারে বলা হয়,‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে সব চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বাতিল করার ঘোষণা দেওয়ার পরে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন প্রকাশে কাজ করে যাচ্ছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। যা আমরা বিভিন্ন পত্রিকা, টেলিভিশনের মাধ্যমে জানতে পেরেছি। কিন্তু এখনো কেন প্রজ্ঞাপন দেওয়া হচ্ছে না, এ বিষয়টিকে পুঁজি করে কোটা সংস্কার আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে সারা দেশে অরাজকতা সৃষ্টির জন্য রাশেদ খান গত ২৭ জুন তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে মানহানিমূলক ও নাশকতার উদ্দেশ্যে বক্তব্য প্রদান করেছেন। তাঁর (রাশেদ খান) এ বক্তব্যের কারণে প্রধানমন্ত্রীর মানহানি হয়েছে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ সারা দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অরাজকতার সৃষ্টি হতে পারে।’

গত ১ জুলাই কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খানকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) উপকমিশনার মাসুদুর রহমান এনটিভি অনলাইনকে বলেন,‘মিরপুর থেকে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতা রাশেদ খানকে আটক করা হয়েছে। পরে তাঁকে শাহবাগ থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement