Beta

টয়লেটের ট্যাংকি থেকে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:২৯ | আপডেট: ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৩০

নওগাঁর মান্দা উপজেলায় টয়লেটের ট্যাংকি থেকে অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার দুপুরে উপজেলার ভালাইন ইউনিয়নের চকভালাইন হঠাৎপাড়া গ্রাম থেকে সজনী খাতুন (২৮) নামে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সজনী খাতুন ওই গ্রামের ওয়াজেদ আলীর স্ত্রী।

মান্দা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুব আলম জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার দাম্পত্য কলহের জের ধরে বেলা ১১টার দিকে ওয়াজেদ আলী তাঁর স্ত্রী সজনীকে বেদম মারপিট করেন। আজ সকাল থেকে তাঁদের দুজনের কাউকেই বাড়িতে দেখা যায়নি। পরে সকাল ৯টার দিকে প্রতিবেশী আব্দুল খালেক তাঁর বাড়ির পেছনে টয়লেটের ট্যাংকির ভেতরে সজনীর লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ সজনীর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়ে দেয়।

সজনী-ওয়াজেদ দম্পতির শোবার ঘরে ছোপছোপ রক্তের দাগ রয়েছে। নির্যাতনের কারণে সজনীর মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে ওয়াজেদ পলাতক রয়েছেন।

স্থানীয়রা জানান, ওয়াজেদ আলী বখাটে প্রকৃতির যুবক। গত ২৬ জুলাই একটি চুরির মামলায় পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছিল। ঈদের আগে জামিনে বেরিয়ে আসেন তিনি।

এদিকে মরদেহ উদ্ধারের খবর পেয়ে মান্দা সার্কেলের জ্যেষ্ঠ সহকারী পুলিশ সুপার হাফিজুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে মান্দা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement