Beta

ধর্মমন্ত্রীকে রাজাকার বলায় সেই বাদীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২৩:২১

ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানকে রাজাকার বলায় মহানগর যুবলীগের নিহত নেতা সাজ্জাত আলম শেখ আজাদের স্ত্রী ও আজাদ হত্যা মামলার বাদী দিলরুবা আক্তার দিলুকে আসামি করে মানহানির মামলা করা হয়েছে। ছবি : এনটিভি

ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানকে রাজাকার বলায় এবং তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যার সঙ্গে জড়িত দাবি করে বক্তব্য দেওয়ায় ময়মনসিংহের আদালতে মানহানির মামলা করা হয়েছে। এতে ময়মনসিংহ মহানগর যুবলীগের নিহত নেতা সাজ্জাত আলম শেখ আজাদের স্ত্রী ও আজাদ  হত্যা মামলার বাদী দিলরুবা আক্তার দিলুকে আসামি করা হয়েছে।

ময়মনসিংহের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম ও ১ নম্বর আমলি আদালতের বিচারক রোজিনা খান মামলাটি আমলে নিয়ে দিলরুবার নামে গ্রেপ্তারি  পরোয়ানা জারি করেছেন।

মামলার বাদী হয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড ময়মনসিংহ জেলা শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মোস্তাফিজুর রহমান শাহীন। মামলার ফাইলিং আইনজীবী আব্দুর রহমান আল হোসাইন তাজ এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা।

আসামি দিলরুবা আক্তার দিলু গত শুক্রবার রাতে তাঁর স্বামী আজাদ শেখ হত্যার জন্য ২৫ জনকে আসামি করে ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমানের ছেলে ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত ওই মামলার প্রধান আসামি।

মামলার আর্জিতে আব্দুর রহমান আল হোসাইন তাজ বলেন, ২৮ আগস্ট দুপুরে শহরের গাঙ্গিনাড় পাড় এলাকায় তথাকথিত মানববন্ধনে আসামি বলেন, ‘আমার তো মনে হয় তাঁর (শান্ত) বাপই (মতিউর রহমান) রাজাকার। শেখ হাসিনার বাপকে যে হত্যা করে তাঁর বাপও জড়িত আছে আমার এখনো মনে হয়। শেখ মুজিবুরকে যে হত্যা করেছে তার পিছেও তার বাপের হাত আছে- এটা আমার বিশ্বাস। শেখ মুজিবুরকে যেভাবে নির্মমভাবে হত্যা করেছে ঠিক সেভাবে আমার স্বামীকে হত্যা করেছে।’

গত ৩১ জুলাই দুপুরে আজাদকে গলা কেটে হত্যা ও পরে বুক ফেঁড়ে কলিজা বের করে নেওয়া হয় বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement