Beta

আশুগঞ্জে রিকশাচালকের হাত-বাঁধা লাশ উদ্ধার

০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৩

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা থেকে আজ মঙ্গলবার ভোরে হাত বাঁধা ও গলায় গামছা পেচানো অবস্থায় শামীম নামের এক রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার করা হয়। ছবি : এনটিভি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলার বাহাদুর-তালশহর সড়কের পাশ থেকে হাত বাঁধা ও গলায় গামছা পেচানো অবস্থায় এক রিকশাচালকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ মঙ্গলবার ভোরে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

নিহত ব্যক্তির নাম শামীম (২০)। তিনি উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের মো. শাহজাহানের ছেলে।

আশুগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. মেজবাহ উদ্দিন জানান, গত ১ সেপ্টেম্বর দুপুর ২টার দিকে দুর্গাপুর গ্রামের শামীম প্রতিদিনের মতো ভাড়ায়চালিত রিকশা চালানোর জন্য বের হন। রাত ৮টা পর্যন্ত তাঁর কোনো খোঁজ-খবর না পেয়ে তাঁর মোবাইল ফোনে ফোন করেন বাবা শাহজাহান। কিন্তু ফোন বন্ধ পান তিনি। ২ সেপ্টেম্বর বিকেল পর্যন্ত শামীমের সন্ধান না পাওয়ায় তাঁর বাবা শাহজাহান আশুগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

মেজবাহ জানান, জিডি করার পর পুলিশ শামীমের খোঁজ করতে থাকে। এরই মধ্যে আজ ভোরে পুলিশ খবর পায় যে বাহাদুরপুর-তালশহর সড়কের পাশে একটি লাশ পড়ে আছে। এ খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে গিয়ে ভোর ৬টায় শামীমের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। সকাল ৭টায় শামীমের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মেজবাহ উদ্দিন বলেন, প্লাস্টিকের রশি দিয়ে দুই হাত পেছনে বেঁধে এবং গলায় গামছা পেচিয়ে শামীমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়। এরপর তাঁর ভাড়ায় চালিত রিকশা নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। এ হত্যাকাণ্ডের তদন্ত করে জড়িতদের খুঁজে বের করতে পুলিশ কাজ করছে। হত্যাকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement