Beta

নওগাঁয় বিএনপির চার শতাধিক নেতাকর্মীর নামে মামলা

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ২২:১৬

গত ১ সেপ্টেম্বর নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় বিএনপির মিছিলে পুলিশের বাধা উপেক্ষা করে সামনে এগিয়ে যেতে চায় দলীয় নেতাকর্মীরা। ছবি : এনটিভি

সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে নওগাঁয় বিএনপির চার শতাধিক নেতাকর্মীর নামে মামলা করেছে পুলিশ। গত শনিবার এই মামলা করেন আত্রাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুতসোম সরকার।

আজ সোমবার এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন আত্রাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোবারক হোসেন। তবে,এ মামলায় এখনো পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি।

মামলার এজাহারে আত্রাই উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক ও আত্রাই উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি শেখ রেজাউল ইসলাম রেজুসহ ৩১ জনের নাম উল্লেখসহ চার শতাধিক নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে।

নাম উল্লেখ করা অন্য আসামিরা হলেন- আত্রাই উপজেলার বিএনপি নেতা আব্দুল মান্নান, তসলিম উদ্দিন, শেখ একরামুল হক পিন্টু, শেখ মনজুর রহমান, আব্দুল জলিল চকলেট, পারভেজ ইকবাল, জাকিরুল ইসলাম সনি, আদর, নজরুল ইসলাম, আতাউর রহমান, আশরাফুল ইসলাম, বাহাদুর, পারভেজ, আব্দুল মান্নান, সাবু, আলাউদ্দিন আলা, আব্দুল হাকিম, লুটু, আলমগীর হোসেন, সোহেল, মনোয়ার হোসেন লোটাস, ইলিয়াস হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, আব্দুল মান্নান, তারেক, লিংকন, আরিফ, আব্দুল মতিন, বুলেট ও ওহাব খামারু।

এ ছাড়া অজ্ঞাতনামা চার শতাধিক বিএনপি নেতাকর্মীকে এ মামলায় আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ১ সেপ্টেম্বর বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে র‌্যালির নামে বেআইনি জনতা দলবদ্ধ হয়ে লাঠিসোঁটা নিয়ে সড়কে চলাচল করা সাধারণ মানুষের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে। এ সময় তারা সরকারবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দেয় এবং রাস্তায় চলাচলরত যানবাহন ভাঙচুর করে।

এ সময় পুলিশ তাদের বাধা দিলে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশের ওপর হামলা করে। এতে মামলার বাদীসহ বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হন। এ ছাড়া বিএনপি নেতাকর্মীদের হামলায় পুলিশ কর্মকর্তার মোটরসাইকেল ক্ষতিগ্রস্ত হয় বলেও এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

আত্রাই উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ রেজাউল ইসলাম রেজু এ মামলাটিকে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ‘১ সেপ্টেম্বর বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর র‌্যালি শান্তিপূর্ণ হলেও পুলিশ অতর্কিত র‌্যালিতে হামলা করে, বিএনপি নেতাকর্মীদের মারপিট করে। এতে ৩০ থেকে ৩৫ জন নেতাকর্মী আহত হন।’

রেজু বলেন, ‘আত্রাই থানা পুলিশ ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) আগে থেকে চিঠি দিয়ে জানানোর পরও পুলিশ শান্তিপূর্ণ মিছিলে বিনা উসকানিতে লাঠিচার্জ করে। আত্রাই উপজেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপির আন্দোলন সংগ্রামকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত এবং উপজেলাকে বিএনপি নেতাকর্মী শূন্য করার জন্য এই মিথ্যা মামলা করা হয়েছে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement