Beta

দুই বাসযাত্রীর কাছে ১৪ কেজি সোনা

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:২৫

নিজস্ব সংবাদদাতা
ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যাত্রীবাহী দুটি বাসে তল্লাশি চালিয়ে গতকাল রোববার বিকেলে ১২০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় আটক করা হয়েছে ছয়জনকে। ছবি : সংগৃহীত

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যাত্রীবাহী দুটি বাসে তল্লাশি চালিয়ে ১২০টি সোনার বার উদ্ধার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এর ওজন প্রায় ১৪ কেজি। বিপুল পরিমাণ এই স্বর্ণ বহনের জন্য ছয়জনকে আটক করা হয়েছে।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‍্যাব মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-৩-এর উপ-অধিনায়ক রাহাত হারুন খান।

উপ-অধিনায়ক দাবি করেন, সিলেট থেকে চোরাচালান চক্রের কিছু সদস্য ঢাকায় অবৈধভাবে সোনার চালান আনছে—এমন তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল রোববার বিকেলে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাঁচদোনা এলাকায় একটি চেকপোস্ট বসানো হয়।

সেখানে প্রথমে এনা পরিবহনের একটি বাসে তল্লাশি করে তিন যাত্রীর প্যান্টের পকেট থেকে ৬০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়। পরে তাঁদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গ্রিন লাইনের একটি বাসে তল্লাশি চালানো হয়। সেখানেও অন্য তিন যাত্রীর কাছ থেকে আরো ৬০টি সোনার বার উদ্ধার করা হয়।

রাহাত হারুন খান জানান, এঁরা মূলত বাহক হিসেবে কাজ করেন। প্রত্যেকে চালান জায়গামতো পৌঁছে দেওয়ার জন্য ১৪ হাজার করে টাকা পেতেন। এর আগেও তাঁরা একই কাজ করেছে। তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন বলে জানান তিনি।

আটকরা হলেন তানভীর আহমেদ (৩৫), রাজু হোসেন (২৩), জালাল হোসেন (২২), আবুল হোসেন (৩৫), রাজু আহমেদ (৩০) ও আলাউদ্দিন (৩২)। এ সময় তাঁদের ছয়জনের কাছে থাকা ১৪টি মোবাইলও উদ্ধার করা হয়।

Advertisement