Beta

৩০০ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী থাকবে : আনিসুল

৩০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:২৮

এস এম উমেদ আলী, মৌলভীবাজার
জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বৃহস্পতিবার বিকেলে মৌলভীবাজারে পৌর মিলনায়তনে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন। ছবি : এনটিভি

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এবং পরিবেশ ও বনমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেছেন, আর মাত্র চার মাস বাকি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের। জাতীয় পার্টি নির্বাচনমুখী দল। ক্ষমতায় যেতে হলে একমাত্র নির্বাচনের মাধ্যমে যেতে হবে। পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, নির্বাচন করবেন এবং ৩০০ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী থাকবে।

আনিসুল ইসলাম মাহমুদ আরো বলেন, আমরা এইবার প্রথম নির্বাচন করছি তা নয়। এরশাদসাব যখন জেলে ছিলেন, তখনও নির্বাচন করেছি। আজকে কোনো একটা দলের প্রধান যিনি জেলে আছেন, তারা নির্বাচন করবে কি করবে কিনা জানি না। কিন্তু আমাদের পার্টির প্রধান যখন জেলে ছিলেন তিনি সিদ্ধান্ত নিতে এক মুহূর্ত দেরী করেননি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে মৌলভীবাজারে পৌর মিলনায়তনে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য এই কথাগুলো বলেন আনিসুল ইসলাম মাহমুদ।

জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সৈয়দ সাহাবউদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুরুল হকের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ.বি.এম রুহুল আমিন হাওলাদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমদ বাবলু, সমবায় প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, ইয়াহইয়া চৌধুরী এমপি, সুনীল শুভ রায়, এসএম ফয়সল চিশতি প্রমুখ। এছাড়াও জেলা ও উপজেলার নেতা-কর্মীরা বক্তব্য দেন।

পরিবেশ ও বনমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ আরো বলেন, ক্ষমতা পরিবর্তনের একমাত্র মাধ্যম হচ্ছে নির্বাচন। নির্বাচনের মাধ্যমেই আবার জাতীয়পার্টিকে ক্ষমতায় আনতে হবে। এর জন্য যা প্রয়োজন তা জাতীয় পার্টিও করবে।

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চলাফেরা একেবারে সাধারণ মানুষের মতো উল্লেখ করে আনিসুল বলেন, তাঁর মতো ব্যক্তির ঢাকায় একটি বাড়ি নাই। যিনি একটি ফ্ল্যাটে থাকেন এই হচ্ছে এরশাদ।

জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ.বি.এম রুহুল আমিন হাওলাদার বৃহস্পতিবার বিকেলে মৌলভীবাজারে পৌর মিলনায়তনে জেলা জাতীয় পার্টির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে বক্তব্য দেন। ছবি : এনটিভি

প্রধান বক্তার বক্তব্যে জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ.বি.এম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, এরশাদ মামলা-হামলা অতিক্রম করেই দলকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

তৃণমূল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে করে মহাসচিব বলেন, আগামী নির্বাচনে মৌলভীবাজারে জাতীয় পার্টিকে আপনারা বিজয়ী করবেন।

পার্টির চেয়ারম্যানের বরাত দিয়ে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, ‘তোমরা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হও, যাতে আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সরকার গঠন করে মৌলভীবাজারবাসীর মুখে হাসি ফুটাতে পারে।’

মহাসচিব আরো বলেন, মামলা-হামলা এরশাদের আমলে ছিল না। মামলা-হামলায় পড়ে তাঁর (এরশাদ) ২৭টি বছর চলে গেছে। এছাড়াও তিনি দলের নেতা-কর্মীদের ঘুরে দাঁড়িয়ে দলকে বিজয়ী করে হত্যা-সন্ত্রাস বন্ধ করার আহ্বান জানান। তিনি সম্মেলনে নতুন কমিটি দিয়ে নির্বাচন পরিচালনা করা হবে উল্লেখ করে বলেন, আপনাদের পরামর্শের ভিত্তিতে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হবে।

পরে নেতা-কর্মীরা বর্তমান সভাপতি শাহাবউদ্দিন আহমদকে ‘মানি না, মানব না’ বলে হট্টগোল শুরু করেন। এ সময় ‘শামীম ভাই-কামাল ভাই, সভাপতি পদে দেখতে চাই’ বলে কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে চিৎকার করেন অনুষ্ঠানস্থলের নেতাকর্মীরা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement