Beta

নওগাঁয় মাদক মামলায় ১৪ বছরের কারাদণ্ড

২৮ আগস্ট ২০১৮, ১৮:২৬

নওগাঁয় মাদক মামলায় মো. আলাউদ্দিন (৩২) নামের এক ব্যক্তিকে ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে নওগাঁর অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২-এর বিচারক মজিবুর রহমান এ রায় দেন। একই আদেশে ওই আসামিকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো তিন মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

দণ্ডাদেশ পাওয়া আলাউদ্দিন চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুর উপজেলার মাধাইপুর গ্রামের বাসিন্দা। জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে আলাউদ্দিন পলাতক আছেন। একই মামলায়  অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় দুই আসামি মোশাররফ হোসেন (৩৫) ও মো. সোহেলকে (২৮) বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

আদালত-সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৯ মে নওগাঁ জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) উপপরিদর্শক (এসআই) নিরঞ্জন কুমার জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার চৌপাড়া গ্রামে অভিযান চালান। পুলিশ সদস্যরা গ্রামের চৌপাড়া ফাজিল মাদ্রাসার সামনে পৌঁছালে আসামি আলাউদ্দিন, মোশাররফ হোসেন ও সোহেল পালানোর চেষ্টা করলেও ব্যর্থ হন। পুলিশ তাঁদের আটক করে দেহ তল্লাশি করে। আলাউদ্দিনের হাতে থাকা ব্যাগ থেকে দুই হাজার ইয়াবা ও ২০০ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করা হয়। ওই ঘটনায় এসআই নিরঞ্জন কুমার বাদী হয়ে আটক তিনজনের বিরুদ্ধে নিয়ামতপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ১৯৯০-এর ১৯(১) ধারায় মামলা করেন।

দীর্ঘদিনের শুনানি শেষে আলাউদ্দিনের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় অবশেষে আলাউদ্দিনকে আজ ১৪ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়।

সরকারপক্ষে আইনজীবী শামসুর রহমান, আসামি আলাউদ্দিনের পক্ষে আইনজীবী এস এম আব্দুর রহমান, মোশাররফ হোসেনের পক্ষে আইনজীবী সোমেন্দ কুমার কুণ্ডু ও  সোহেলের পক্ষে আইনজীবী মোফাজ্জল হক মামলাটি পরিচালনা করেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement