Beta

ক্রিকেটার সৈকতের বিরুদ্ধে স্ত্রীর মামলা

২৬ আগস্ট ২০১৮, ২১:১২ | আপডেট: ২৬ আগস্ট ২০১৮, ২১:৩৫

বিয়ের দিন সামিয়ার সঙ্গে সৈকত। ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় দলের ক্রিকেটার মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের নামে নারী নির্যাতনের মামলা করেছেন তাঁর  স্ত্রী সামিয়া শারমিন।

ময়মনসিংহের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিমের ১ নং আমলি আদালতে এই মামলাটি করেন সৈকতের স্ত্রী শারমিন। মামলায় আসামি করা হয়েছে সৈকতের মা পারুল বেগমকেও।

সামিয়া শারমিন জানান, আজ রোববার বিকালে তিনি এই মামলাটি করেন। তাঁর দাবি, বিয়ের পর থেকেই তাঁকে (সামিয়া) মারধর করতেন সৈকত। গত ১৫ আগস্ট দশ লাখ টাকা যৌতুক দাবি ও তাঁকে মারধর করে বাসা থেকে বের করে দেন সৈকত। এ জন্য তিনি মামলা করেছেন, চান ন্যয়বিচার।

শারমিন আরো জানান, তাঁর স্বামীর অন্য মেয়ের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রায়ই ঝগড়া হতো। শারীরিক অসুস্থতার জন্য তিনি বাবার বাড়ি যান। গত ১৪ আগস্ট তাঁকে বাসায় নিয়ে যান সৈকত। বাসায় নিয়ে তাঁর ওপর নির্যাতন চালান।

বিষয়টি জানতে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে কয়েক দফা ফোন করা হলেও তিনি ফোন ধরেননি।

জানা যায়, ২০১২ সালের ২৮ অক্টোবর মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের সঙ্গে সামিয়া শারমিনের বিয়ে হয়। দুই পরিবারের সম্মতিক্রমে পারিবারিক পরিবেশে শহরের আকুয়া চৌরঙ্গীর মোড় এলাকায় শারমিনদের বাসায় সৈকত ও তাঁর স্বজনদের উপস্থিতিতে বিয়ে সম্পন্ন হয়।

২০১৬ সালে খুলনায় জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে জাতীয় দলের হয়ে টি-টোয়েন্টি ম্যাচে অভিষেক হয় মোসাদ্দেকের। একই বছর ওয়ানডে দলেও জায়গা পান তিনি। পরের বছর কলম্বোতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট খেলেন তিনি।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে দুটি টেস্ট, ২১টি ওয়ান ডে এবং আটটি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন মোসাদ্দেক।

আগামী মাসে আয়োজিত এশিয়া কাপে জাতীয় দলের প্রাথমিক দলেও আছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement