Beta

সোলার প্যানেলে আলোকিত হাইওয়ে

২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৮:৫১

সোলার প্যানেলের আলোয় আলোকিত চট্টগ্রামের একটি রাস্তা। ছবি : এনটিভি

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড ও মীরসরাই হাইওয়ে এলাকায় বসানো হয়েছে সোলার প্যানেল। এতে রাতের বেলায় বিদ্যুতের আলো থাকায় সড়কে কমেছে অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড।

আজ রোববার এ বিষয়ে কথা হয় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের সঙ্গে। তারা জানায়, শুধু হাইওয়েগুলোই না, সোলার প্যানেলের মাধ্যমে চট্টগ্রামের সব উপজেলাকে শতভাগ বিদ্যুতের আওতায় আনা হচ্ছে।

জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াছ হোসেন বলেন, ‘শুধু এটা হাইওয়েগুলো না। পরবর্তী সময়ে আমরা ধাপে ধাপে এগুলো গ্রামে-গঞ্জে যেখান দিয়ে লোকজনের যাতায়াত থাকে রাতের বেলা, বিশেষ করে সেসব এলাকাতেও আমরা সৌর বিদ্যুৎ দিয়ে আলোকিত করে দেব।’

জেলার ১০টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়নের কার্যক্রম শেষ হয়েছে। এর মধ্যে ছয়টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুৎতায়নের আওতায় এসেছে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে বলেও কর্তৃপক্ষ জানায়।

সম্পূর্ণ সরকারি খরচে স্থাপিত এসব সোলার প্যানেল থেকে রাতে সর্বনিম্ন ৮ ঘণ্টা বিদ্যুৎ সুবিধার পাশাপাশি, প্রাকৃতিক দুর্যোগের সময়ও এগুলো কাজ করবে বলে জানান উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা মোর্শেদ নিয়াজ।

মোর্শেদ নিয়াজ বলেন, ‘বর্ষাকালে, অতিবৃষ্টিতে অথবা আপনার কুয়াশা থাকে, অল্প আলোতেও এটা চার্জ হয়। এগুলাতে লিথিয়াম ব্যাটারি দেওয়া হইছে।’

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড-মীরসরাই এলাকার অধিকাংশ স্থানে এখন শোভা পাচ্ছে সোলার প্যানেল। যার সঙ্গে সংযোগ দেওয়া আছে লাইট। রাতে এসব লাইটের আলোতে আলোকিত হয়ে যায় হাইওয়ের রাস্তাঘাট। ফলে কমে গেছে পণ্যবাহী ট্রাকে ডাকাতিসহ নানা অপরাধ। একইভাবে বিভিন্ন উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা এখন সৌর বিদ্যুতের আলোতে হচ্ছে আলোকিত।

স্থানীয় এক ব্যাক্তি বলেন, ‘আগে মানুষের টর্চলাইট লাগত, হারিকেন লাগত। এখন এগুলো কিছু লাগে না। আমরা সুবিধা ভোগ করতেছি। শুধু ঘরবাড়ি নয়, মসজিদ, মন্দির, রাস্তাঘাট সবকিছু আলোকিত হচ্ছে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement