Beta

নরসিংদীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষে একজন নিহত, আহত ৩০

২১ আগস্ট ২০১৮, ১২:৫৪

আধিপত্য ও মামলা-সংক্রান্ত বিষয়ের জের ধরে নরসিংদীর অনন্তপুর গ্রামে দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়েছে। ছবি : এনটিভি

আধিপত্য ও মামলা-সংক্রান্ত বিষয়ের জের ধরে নরসিংদীর চরাঞ্চল অনন্তপুর গ্রামে দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে একজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ৩০ জন।

নিহত মোহাম্মদ আলী (৩০) অন্তরামপুর গ্রামের মোসলেম মিয়ার ছেলে। তিনি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেনের সমর্থক বলে জানা গেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এলাকার আধিপত্য, পূর্বশত্রুতা ও মামলার জের ধরে সদর উপজেলার চরাঞ্চল চরদীঘলদী ইউনিয়নের অনন্তরামপুর গ্রামের ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেনের সঙ্গে একই গ্রামের ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি নেওয়াজ আলী মেম্বারের সঙ্গে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। দ্বন্দ্বের জের ধরে গত কয়েক মাসে উভয় পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। এর পর থেকে বিএনপি সমর্থিতরা গ্রামছাড়া হয়ে পড়ে। কোরবানির ঈদকে ঘিরে নেওয়াজ আলী মেম্বারের সমর্থকরা গ্রামে ফিরে। এ নিয়ে উত্তেজনা দেখা দেয়। এরই জের ধরে আজ মঙ্গলবার সকালে দুই পক্ষের সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় প্রতিপক্ষের হামলায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেনের সমর্থক মোহাম্মদ মারা যান। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে সংঘর্ষ ব্যাপক আকার রূপ নেয়। এ সময় উভয় পক্ষের প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের পার্শ্ববর্তী জেলা নবীনগর, বাঞ্ছারামপুর, নরসিংদী সদর ও জেলা হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে।

মাধবদী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল কালাম বলেন, সংঘর্ষে একজন নিহত ও বেশ কিছু লোকজন আহত হয়েছেন। এলাকার আধিপত্য, পূর্বশত্রুতা ও মামলার জের ধরে আলমগীর হোসেনের ও নেওয়াজ আলী মেম্বারের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এরই জেরে এ ঘটনা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement