Beta

‘ঈদের জন্য’ বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র চালু

২০ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৫০

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের একটি ইউনিট আজ সোমবার সকাল থেকে চালু করা হয়েছে। ছবি : এনটিভি

ঈদুল আজহায় নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দিতে দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের একটি ইউনিট আজ সোমবার সকাল থেকে চালু করা হয়েছে। কয়লাখনির অল্প কিছু কয়লা উত্তোলনের কারণে এই বিদ্যুৎকেন্দ্রটি পুনরায় চালু করা সম্ভব হয়েছে। তবে যে পরিমাণ কয়লা মজুত রয়েছে তাতে পাঁচ থেকে ছয়দিন কেন্দ্রটি চালু রাখা যাবে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির কয়লা গায়েবের ঘটনার পর গত ২২ জুলাই রাত ১০টা ২০ মিনিট থেকে কয়লার অভাবে বন্ধ হয়ে যায় দেশের একমাত্র তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রটি। বড়পুকুরিয়ার কয়লা খনির নতুন ফেসের কয়লা উত্তোলন শুরু না হলেও রাস্তা তৈরির জন্য অল্প অল্প করে পাওয়া কয়লার মজুত দিয়ে কয়লাভিত্তিক তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রটি আজ থেকে চালু হয়েছে। তিনটি ইউনিটের মোট ৫২৫ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্রের মধ্যে চালু করা হয়েছে ১২৫ মেগাওয়াটের দ্বিতীয় ইউনিটটি। কেন্দ্রটি চালু করতে প্রতিদিন ১ হাজার ২০০ মেট্রিক টন কয়লা প্রয়োজন। বিদ্যুৎকেন্দ্রটি বন্ধ থাকায় লোডশেডিংসহ লো-ভোল্টেজের কারণে বেশ দুর্ভোগে ছিল এলাকাবাসী। তবে কেন্দ্রটি চালু হওয়ায় কিছুটা স্বস্তি পেয়েছেন তারা।

বর্তমানে প্রায় ছয় হাজার টন কয়লা মজুত রয়েছে। মজুতকৃত কয়লা দিয়ে পাঁচ থেকে ছয় দিন চালু রাখা সম্ভব হবে। তবে সকাল ৯টা থেকে কেন্দ্রটি চালু হলেও জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ যোগ হয় দুপুরের পরে।

রংপুর বিভাগের আটটি জেলায় ৬৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুতের চাহিদা থাকলেও জাতীয় গ্রিড থেকে সরবরাহ পাওয়া যায় ৫০০ থেকে ৫৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ। প্রায় ১৫০ মেগাওয়াট ঘাটতির কারণে এই জেলাগুলোতে লোডশেডিংয়ের পাশাপাশি লো-ভোল্টেজের সমস্যা দেখা দিচ্ছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement