Beta

ডিবির বরখাস্ত হওয়া এএসআই ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার

২০ আগস্ট ২০১৮, ১৫:৫৮

নারায়ণগঞ্জ থেকে ১০ হাজার ইয়াবা ও মাদক বিক্রির টাকাসহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের বরখাস্ত হওয়া এএসআই মো. সালাউদ্দিন ও তাঁর সহযোগী রনিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। ছবি : ফোকাস বাংলা

নারায়ণগঞ্জ থেকে ১০ হাজার ইয়াবা ও মাদক বিক্রির পৌনে তিন লক্ষাধিক টাকাসহ জেলা গোয়েন্দা পুলিশের বরখাস্ত হওয়া সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. সালাউদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছেন র‌্যাব-১১ সদস্যরা। আজ সোমবার ভোর পৌনে ৪টার দিকে সদর উপজলোর সিদ্ধিরগঞ্জ থানার মৌচাক বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ সময় র‌্যাব মাদক বহনের কাজে ব্যবহৃত সালাউদ্দিনের ব্যক্তিগত একটি সাদা রঙের প্রাইভেটকার ও মাদক ব্যবসার সহযোগী রনিকেও আটক করে। এ ছাড়া গাড়িতে থাকা ডিবি পুলিশের একটি জ্যাকেট, আইডি কার্ড ও বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোনও জব্দ করা হয়।

দুপুরে সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজীনগর এলাকায় র‌্যাব-১১-এর সদর দপ্তরে ভারপ্রাপ্ত সিও মেজর আশিক বিল্লাহ এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, টেকনাফ থেকে আসা বিপুল পরিমাণ ইয়াবার চালান নিয়ে সালাউদ্দিন সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাক এলাকায় অবস্থান করছেন—এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সোমবার ভোররাতে সেখানে অভিযান চালায় এবং ইয়াবা ও ইয়াবা বিক্রির টাকাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা দায়েরসহ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানান তিনি।

মেজর আশিক বিল্লাহ আরো জানান, সালাহউদ্দিনকে গ্রেপ্তারের জন্য র‌্যাব বেশ কিছুদিন ধরে চেষ্টা চালিয়ে আসছিল। তাঁর বিরুদ্ধে এর আগে সদর থানা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় দুটি মাদকের মামলা রয়েছে। তিনি এ দুই মামলায় পলাতক থেকে বিভিন্ন এলাকায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে মাদক ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন।

র‍্যাব কর্মকর্তা জানান, সালাহউদ্দিন ২০০৩ সালে কনস্টেবল হিসেবে পুলিশ বিভাগে যোগ দেন। গত বছর এএসআই হিসেবে পদোন্নতি পাওয়ার পর তাঁকে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশে স্থানান্তর করা হয়। ডিবিতে যোগদানের পর থেকেই টেকনাফের শীর্ষস্থানীয় ইয়াবা ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন জেলার মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সালাহউদ্দিনের সখ্য গড়ে ওঠে। ওই সময় থেকেই তিনি মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। আট মাস আগে জেলা পুলিশ প্রশাসন থেকে তাঁকে প্রত্যাহার করা হয়। তিনি চাকরিতে যোগ না দিয়ে আত্মগোপন করে পুরোপুরিভাবে মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন। নিজেকে ডিবির এএসআই পরিচয় দিয়েই এত দিন সশরীরে মাদক বহনসহ মাদক ব্যবসা চালিয়ে আসছিলেন। এর আগে গত ২৩ জুলাই র‌্যাব সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী এলাকায় সালাউদ্দিনের বাসায় তল্লাশি করে পাঁচ হাজার ৬২০টি ইয়াবা ও মাদক বিক্রির নয় লাখ টাকা উদ্ধার করে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement