Beta

মোটরসাইকেলের জন্য বন্ধুকে জবাই, তিনজনের মৃত্যুদণ্ড

১৯ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৩৯

ঝিনাইদহের কলেজছাত্র ইমরান হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশ পাওয়া তিন আসামির মধ্যে দুজনকে আজ রোববার কারাগারে নিয়ে যায় পুলিশ। ছবি : এনটিভি

ঝিনাইদহের কলেজছাত্র ইমরান হত্যা মামলায় তিনজনের মৃত্যুদণ্ডের রায় জানিয়েছেন আদালত। আজ রোববার ঝিনাইদহের অতিরিক্ত দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক মো. গোলাম আযম এ রায় দেন।

মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামিরা সবাই নিহত ইমরানের বন্ধু। তাঁরা হলেন, ঝিনাইদহ পৌর এলাকার ছোট কামারকুণ্ডু গ্রামের ইমরান, মো. নাসির বিশ্বাস ও শিকারপুর গ্রামের মনিরুল ইসলাম মকুল। একই সঙ্গে তাদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত।

এ মামলায় জাকির হোসেন নামের একজনকে খালাস দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও আসামি নাসির বিশ্বাস পলাতক রয়েছেন। তিনি বিদেশে চলে গেছেন বলে তাঁর পরিবার থেকে জানানো হয়েছে।

তবে, দণ্ড পাওয়া বাকি দুই আসামি স্বীকারোক্তি দিয়েছেন যে, ইমরানের একটি লাল রঙের ১৫০ সিসি বাজাজ মোটরসাইকেল ছিল। মোটরসাইকেলটির জন্যই তাঁরা তাদের বন্ধু ইমরানকে হত্যা করেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে বলা হয়েছে, ২০১১ সালের ২১ অক্টোবর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার  লাউদিয়া গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের ছেলে ইমরান হোসেন বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। পরদিন স্থানীয় মর্গের পাশ থেকে তাঁর জবাই করা লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় ঝিনাইদহ থানায় একটি হত্যা মামলা  করেন নিহতের বাবা।

ওই মামলায় ২০১২ সালের ২৩ জুন আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ। ২০১৩ সালের ১৮ মার্চ আদালতে অভিযোগ গঠন করা হয়। পরে দীর্ঘ শুনানি শেষে বিচারক আজ এ রায় ঘোষণা করেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement