Beta

ট্রেনে কাটা পড়ে নববধূ নিহত, স্বামী পলাতক

১০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:০১ | আপডেট: ১০ আগস্ট ২০১৮, ২৩:৩১

লাশের সঙ্গে পাওয়া কাগজে সোনালীর ছবি। পাশের ছবিটি তাঁর স্বামী জুয়েলের। ছবি : এনটিভি

কিশোরগঞ্জের ভৈরব রেলওয়ে সেতু এলাকায় ট্রেনে কাটা পড়া এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুইদিন আগে তাঁর বিয়ে হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার বিকেলে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

নিহত নারীর নাম সোনালী আক্তার (১৮)। তাঁর বাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার খুদিজঙ্গল গ্রামে। সোনালীর বাবার নাম সবুজ মিয়া।

ভৈরব রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল মজিদ বলেন, ‘সোনালীর লাশের পাশে বিয়ে সংক্রান্ত একটি কাগজ পাওয়া যায়। সেখানে উল্লেখ আছে, গত বুধবার জুয়েল ইসলামের (২২) সঙ্গে বিয়ে হয় সোনালীর। জুয়েলের বাড়ি নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলার দ্যৈবেলঘরিয়া গ্রামে। ঘটনার পর থেকে স্বামী জুয়েল পলাতক। তাঁকে খুঁজে পাওয়া গেলে এই রহস্য উন্মোচিত হবে।’ 

ওসি মজিদ আরো বলেন, ‘সোনালীর বাবা সবুজ মিয়া মোবাইল ফোনে জানান তিনি তাঁর মেয়ের লাশ নিতে চান না।’

ভৈরব রেলওয়ে থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সুরুজ্জামান জানান, ধারণা করা হচ্ছে, আজ বিকেলে ঢাকা থেকে সিলেটগামী জয়ন্তিকা এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে কাটা পড়ে ওই নারী নিহত হয়েছেন। ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement