Beta

ফরিদপুরে কামাল ইবনে ইউসুফ

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সরকারের ভিত নড়বড়ে হয়ে গেছে

০৮ আগস্ট ২০১৮, ০০:৪২

ফরিদপুর শহরের ময়েজ মঞ্জিলে কোতোয়ালি থানা যুবদল আয়োজিত মতবিনিময় সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ বক্তব্য দেন। ছবি : এনটিভি

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ বলেছেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীতে স্কুলের কোমলমতি শিশু শিক্ষার্থীরা যেভাবে রাস্তায় নেমেছে তাতে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ভিত নড়বড়ে করে দিয়েছে। এইসব ছেলেমেয়েরা তো সরকারের পতন চায় নাই। কিন্তু তাদের আন্দোলনে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়ে গেছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। যদি এসব শিক্ষার্থীদের একটু স্নেহ দিয়ে বুঝিয়ে ঘরে ফেরাতো তাতে তাদের কোনো ক্ষতি হতো না। কিন্তু সেটা না করে তাদের ওপর সরকার নিষ্ঠুর দমন-পীড়নের পথ বেছে নিয়েছে। 

মঙ্গলবার বিকেলে ফরিদপুর শহরের ময়েজ মঞ্জিলে কোতোয়ালি থানা যুবদল আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ একথা বলেন। ফরিদপুরের সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায়ের যুবদল নেতাকর্মীদের সঙ্গে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ তাঁর বক্তব্যে আরো বলেন, আমাদের এখন ঐক্যবদ্ধ হওয়ার সময় এসেছে। সারা দেশে বিএনপির ১৬ লাখ নেতাকর্মীর নামে মামলা। এই সরকারের জুলুম নির্যাতন অতীতের সব রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। জনগণ এখন এদের কবল থেকে মুক্তি চায়।

বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে সামনে আন্দোলন সংগ্রামে নামতে হবে উল্লেখ করে সবাইকে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তোলার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ।

কোতোয়ালি থানা যুবদলের সভাপতি চৌধুরী নাজমুল হাসান রঞ্জনের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এএফএম কাইয়ুম ও জাফর হোসেন বিশ্বাস, শহর বিএনপির সভাপতি রেজাউল ইসলাম রেজোয়ান, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মিরাজ, সদর উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও মহানগর যুবদলের সভাপতি বেনজির আহমেদ তাবরীজ, মহানগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক রেজানুর বিশ্বাস তুরণ, কোতোয়ালি থানা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শহিদ, সহসভাপতি লুৎফর রহমান সাংগঠনিক সম্পাদক শাহিদ আল ফারুক, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সৈয়দ আদনান হোসেন অনু, সাধারণ সম্পাদক তানজিমুল হাসান কায়েস, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি শাহরিয়ার শিথীল, ছাত্রদল নেতা সাইফুল ইসলাম, জিয়া পরিষদের জেলা সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুল হান্নান, যুবদল নেতা শাহরিয়ার হোসেন রাজিব, কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন যুবদলের ইসলাম মোল্যা, ঈশান গোপালপুরের মনিরুজ্জামান হেলাল, ডিক্রির চর ইউনিয়নের হাফিজুল ইসলাম রাজা, যুবনেতা রিপন সওদাগর,এসএম মামুন, রায়হান মৃধা রাশেদ প্রমুখ।

বক্তারা, বিভিন্ন ইউনিয়নে ক্ষমতাসীন দলের নেতৃত্বে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন-নিপীড়ন চালানো ও জনগণের ভোট কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ করে রুখে দাঁড়ানোর দাবি জানান। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির লক্ষ্যে আন্দোলন সংগ্রামে প্রস্তুত হওয়ারও আহ্বান জানান তারা। যুবদল নেতৃবৃন্দের নেতৃত্বে বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে মিছিল সহকারে নেতাকর্মীরা সভায় যোগ দেন।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement