Beta

নগরবাসীকে জয় উৎসর্গ করলেন সাদিক

৩১ জুলাই ২০১৮, ১২:১৮ | আপডেট: ৩১ জুলাই ২০১৮, ১২:৫২

নিজস্ব প্রতিবেদক
বেসরকারি ফলাফলে জয়লাভের পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। ছবি : এনটিভি

বেসরকারিভাবে বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জয়লাভ করেছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। ফলাফল পাওয়ার পর গতকাল সোমবার রাতে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি।

নির্বাচনে জয়ী হওয়ার পর কী করবেন—এমন প্রশ্নের উত্তরে সাদিক বলেন, “নির্বাচিত হয়ে আমি কী করব, তার উত্তর আমি এককথায় দিতে চাই। ‘বৃক্ষ তোমার নাম কী, ফলে পরিচয়।’ আমার কাজেই আপনারা প্রমাণ পাবেন, আমি কী করব। এখন মুখে বললে তো অনেক কিছুই গল্প বলতে পারি, গল্প বলে তো আর লাভ নেই। আপনারা তো আছেন, আপনারাই দেখবেন আমি কী করব।”

এ সময় বিএনপির মজিবর রহমান সরোয়ারের উদ্দেশে সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, ‘তিনি আমার শ্রদ্ধেয়, আমি তাঁকে কাকু বলে সম্বোধন করি, আপনারা জানেন। রাজনৈতিক ক্ষেত্রে বা নির্বাচনের ক্ষেত্রে হয়তো আমার যদি কোনো বেয়াদবি বা কোনো ধরনের ভুলভ্রান্তি হয়ে থাকে, তাহলে আমি তাঁর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছি। আরেকটি বিষয় হচ্ছে যে, অবশ্যই তিনি আমার শ্রদ্ধেয়জন, যেহেতু তিনি এই শহরের একজন মুরব্বি এবং মেয়র ছিলেন, আমি তাঁর সঙ্গে বা তাঁর কাছ থেকে উপদেশ নেব। তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছুই আমার জানার আছে।’

সাদিক বলেন, ‘আমি আমার এ বিজয়, বিশেষ করে নগরবাসীকে উৎসর্গ করব। আজকে জননেত্রী শেখ হাসিনার যে উন্নয়ন, এই বিজয় সেই উন্নয়নের বিজয়। আমার বাবা, আমার মা যে আমার জন্য দোয়া করেছেন, তার জন্য এই বিজয়। আমার ভাই-বোনেরা যে আমাকে শতভাগ সাপোর্ট করেছেন, আমার স্ত্রী, আমার সন্তানরা আমাকে যে সাপোর্ট করেছে, আমার নেতাকর্মীরা যারা আমাকে সাপোর্ট করেছে, বরিশাল তথা সমগ্র বরিশালবাসী যে সাপোর্ট করেছে, এটা তাঁদের প্রতি আমি উৎসর্গ করব।’

সাদিক বলেন, ‘এটা তো আসলে আগেও বারবার বলেছি আমি, প্রথমত আমার বর্ধিত অঞ্চলের শহরের সুবিধাবঞ্চিত যে নাগরিক আছে, তাদের জন্য আমি কাজ আগে করব। এ ছাড়া যে কলোনিগুলো আছে, তাদের কাজ করব। এই শহরের পয়ঃপ্রণালি ব্যবস্থা হতে শুরু করে বিশুদ্ধ পানির লাইন, যেখানে বিদ্যুৎ নেই সেখানে বিদ্যুতের ব্যবস্থা, যেখানে রাস্তা নেই সেখানে রাস্তার ব্যবস্থা করব। বেসিক এই কাজগুলো করার পরে পরবর্তী দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা আপনাদের জানাতে পারব।’

বেসরকারিভাবে নির্বাচিত মেয়র বলেন, ‘গতকালকের কয়েকটি পত্রিকায় আপনারা অলরেডি দেখেছেন যে, বিএনপি ভোট বর্জন করার কথা ভাবছে। আমি মনে করি, এটি পূর্বপরিকল্পিত এবং এটি যেদিন আমাদের নির্বাচন শুরু হয়েছে, সেদিন থেকেই তিনি এই কথাগুলো বলছেন। আজকে জাতীয় নির্বাচন বা এই নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য যেটাই হোক, আজকে আমি জনগণের সহযোগিতা চাই এবং তাদের পাশে আমি থাকব, যেকোনো বিষয়ে আমি তাঁদের সহযোগিতা চাই।’

সাদিক আবদুল্লাহ আরো বলেন, ‘এত তাড়াতাড়ি, আসলে অনেক কিছুই তো প্রথম আমার কাছে। এইবার প্রথম দায়িত্ব পাচ্ছি, আমার অফিশিয়াল কাজ কীভাবে হবে বা কী হবে, সেটি আমার বোঝার বিষয় আছে। অফিশিয়ালি শপথের পরে আমি যখন বসব, আমার সরকারি সহকর্মীরা থাকবেন, তখন অবশ্যই মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলব। পত্রিকায় কয়েক দিন আগে একটি জরিপে আপনারা দেখেছেন ৪৪ শতাংশ তার কিছু এদিক-সেদিক হতে পারে। আমি বারবার বলেছি, ঘাঁটি বলে আমি কিছু বিশ্বাস করি না। আপনি জনগণের পাশে থাকবেন, জনগণের জন্য করবেন, জনগণ আপনার পক্ষে রায় দেবে, এটাই স্বাভাবিক।’

বরিশালে ১২৩টির মধ্যে ১০৭টি কেন্দ্রের ফল পাওয়া গেছে। আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ এক লাখ সাত হাজার ৩৫৩ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মজিবর রহমান সরোয়ার পেয়েছেন ১৩ হাজার ১৫৩ ভোট।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement