Beta

কক্সবাজারে পাহাড়ধসে নিহত ৫

২৫ জুলাই ২০১৮, ০৮:৫১ | আপডেট: ২৫ জুলাই ২০১৮, ১১:৩২

পুরোনো ছবি

কক্সবাজার সদর ও রামু উপজেলায় পাহাড়ধসে পাঁচজন নিহত হয়েছে। এর মধ্যে চারজন একই পরিবারের সদস্য।

আজ বুধবার ভোরে সদর উপজেলার রুমালিয়াছড়ার বাঁচামিয়া ঘোনায় পাহাড় ধসে পড়লে ঘুমন্ত অবস্থায় একই পরিবারের চারজন মাটিচাপা পড়ে নিহত হয়।

নিহতরা হলো ওই এলাকার বাসিন্দা জামাল হোসেনের চার সন্তান আবদুল হাই (৮), খাইরুন্নেছা (৬), কাফিয়া (১০) ও মর্জিয়া আক্তার (১৫)। একই ঘটনায় তাদের মা গুরুতর আহত হয়েছেন।

অন্যদিকে প্রায় একই সময়ে রামু উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের পানেরছড়া গ্রামে পাহাড়ধসে জাগির হোসেনের ছেলে মোরশেদ আলম (৬) নিহত হয়েছে। এ সময় জাগির হোসেনও আহত হয়েছেন।

এ ছাড়া সদর উপজেলার লিংক রোডের মুহুরীপাড়ার অপর একটি পাহাড়ধসের ঘটনায় দুজন আহত হয়েছেন। তাঁরা হলেন সেখানকার বাসিন্দা মো. ইলিয়াছের দুই মেয়ে শাহিনা আক্তার (১৮) ও ফাতেমা খাতুন (১৪)।

হতাহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জেলা পুলিশ বিভাগ এবং ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

জেলার ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক কাজী আবদুর রহামান আজ সকালে গণমাধ্যমকে বলেন, রাতভর ভারি বৃষ্টিপাত হয়েছে। এতে কক্সবাজার শহরের বাঁচামিয়া ঘোনায় চারজন ও রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়িতে একটি শিশু নিহত হয়েছে।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ছাড়া জেলা প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নিহত পরিবারগুলোকে ২০ হাজার করে টাকা দেওয়া হবে বলেও জানান ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক।

এদিকে, কক্সবাজার আবহাওয়া কার্যালয়ের সহকারী আবহাওয়াবিদ আবদুর রহমান জানান, গত দুদিন ধরে ভারি বৃষ্টি হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় কক্সবাজারে ২২৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। আরো বৃষ্টিপাত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে। একই সঙ্গে ভূমিধস ও বন্যার আশঙ্কা করা হচ্ছে। সাগর উত্তাল রয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement