Beta

জেএসএস নেতাকে গুলি করে, গলাকেটে হত্যা

১৫ জুলাই ২০১৮, ২২:২৬ | আপডেট: ১৫ জুলাই ২০১৮, ২২:৩৯

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলায় শান্তি জীবন চাকমা (৪৫) নামে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) এক নেতাকে গুলি করে ও গলাকেটে হত্যা করা হয়েছে।  

শান্তি জীবন চাকমা উপজেলার তাইন্দং ইউনিয়নের সর্বস্বপাড়া গ্রামের তেজেন্দ্র লাল চাকমার ছেলে। তিনি জেএসএস (এমএন লারমা) সমর্থিত যুব সমিতির ইউনিয়ন কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

আজ রোববার ভোরে বাড়ির পাশের একটি পাহাড়ি ঢাল থেকে শান্তি জীবন চাকমার লাশ উদ্ধার করা হয় বলে জানিয়েছেন মাটিরাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মো. জাকির হোসেন। তিনি আরো জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ভোর ৫টার দিকে শান্তি জীবন চাকমার বাড়ি ঘেরাও করে কতিপয় অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত। এ তিনি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু তিনি পাহাড়ের ঢালুতে পড়ে যান।

এ সময় দুর্বৃত্তরা শান্তি জীবন চাকমার দু’পায়ে গুলি করে এবং পরে গলাকেটে মৃত্যু নিশ্চিত করে ফেলে রেখে যায়।

জেএসএসের (এমএন লারমা) তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুধাকর ত্রিপুরা এ ঘটনার জন্য ইউপিডিএফকে (প্রসিত গ্রুপ) দায়ী করেছেন।

তবে ইউপিডিএফের (প্রসিত) কেন্দ্রীয় গণমাধ্যম শাখার প্রধান নিরণ চাকমা এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার বিকেলে খাগড়াছড়ির আলুটিলায় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ (প্রসিত) কর্মী জ্ঞানেন্দু চাকমা নিহত হন। তার পরের দিন শুক্রবার দুপুরে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সামনে ইউপিডিএফ সমর্থিত উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমার উপর সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটে। গত কয়েকদিন ধরে পাহাড়ে হামলা-পাল্টা হামলা ও হত্যার ঘটনায় জনমনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

Advertisement