Beta

শেফালির লাশ হাসপাতালে রেখে পালালেন স্বামী

০৯ জুলাই ২০১৮, ২১:১৯

শেফালির মেডিকেল রিপোর্ট। ছবি : এনটিভি

শেরপুর সদর হাসপাতালে শেফালি (২৫) নামের এক গৃহবধূর লাশ রেখে পালিয়ে গেছেন স্বামী। আজ সোমবার সকালের দিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান শেফালি।

দুপুরের দিকে স্ত্রীর লাশ না নিয়ে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান স্বামী লাভলু মিয়া।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, গত ৭ জুলাই রাতে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হন শেফালি। আজ সোমবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। কিন্তু দুপুর পর্যন্ত স্ত্রীর লাশ না নিয়ে পালিয়ে যান স্বামী। ফলে হাসপাতাল থেকে পুলিশকে জানানো হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে লাশ নিয়ে যায়।

শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম জানান, নিহত শেফালি শেরপুর সদর উপজেলার কুসুমহাটির হাতিআগলা গ্রামের লাভলু মিয়ার স্ত্রী ও ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার মোহাম্মদ আলীর মেয়ে। পেশায় গাড়ি চালক লাভলুর সঙ্গে তিন বছর আগে প্রেম করে বিয়ে হয় শেফালির। তাদের ঘরে দুই বছরের একটি ছেলে রয়েছে। গত ৭ জুলাই রাতে পারিবারিক কলহের জের ধরে শেফালিকে মারধর করেন লাভলু। পরে আহত অবস্থায় শেফালিকে শেরপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ সকালে মারা যান শেফালি।

এ দিকে পুলিশের সুরতহাল রিপোর্টে শেফালির ঘাড় ভাঙা ও তলপেটে আঘাতের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। পরে পুলিশ লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement