Beta

‘ইফতারির কথা বলে ঘরে ঢুকে প্রেমিকাকে ধর্ষণ, হত্যা’

২৯ জুন ২০১৮, ১৯:৪৭

ফেনীর আসমা আক্তার ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার হওয়া দুই আসামি শাওন হোসেন ও মো. স্বপন। ছবি : এনটিভি

লক্ষ্মীপুরে আসমা আক্তার (১৪) নামের এক কিশোরীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগে শাওন হোসেন ও মো. স্বপন নামে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ফেনী ও ঢাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশের দাবি, ওই কিশোরীকে ধর্ষণ ও হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন ওই দুই যুবক।

সদর থানা পুলিশ জানায়, শাকচর গ্রামের আসমার সঙ্গে আসামি শাওনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আসমাকে তার নানি হালিমা বেগমের দায়িত্বে বাড়িতে রেখে বাবা-মা ফেনীতে তাদের কর্মস্থলে যায়। পরে গত ৯ জুন রাতে নানির অনুপস্থিতিতে ইফতার খাওয়ার ভান করে শাওন ঘরে প্রবেশ করে। এরপর সে আসমাকে ধর্ষণ করে।

কিন্তু, বিষয়টি জানাজানির ভয়ে শাওন আসমাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে পুকুরে ফেলে দেন। আর পুরো ঘটনায় শাওনকে সহায়তা করেন স্বপন।

এদিকে, আসমাকে ঘরে দেখতে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করেন নানিসহ স্বজনরা। পরে ওই রাতেই বাড়ির পাশের পুকুরে তার দেহ ভাসতে দেখা যায়। স্থানীয়রা এসে বিবস্ত্র অবস্থায় তার মরদেহ উদ্ধার করে।

ঘটনার পর থেকেই শাওন ও স্বপন পলাতক ছিলেন। ঘটনার পর শাওনকে প্রধান আসামি করে সদর থানায় একটি মামলা করা হয়।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লোকমান হোসেন বলেন, ‘ফেনি ও ঢাকা থেকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলার প্রধান আসামিসহ দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁরা দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে।’

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement