Beta

‘বিষপানে’ ছেলেসহ আত্মঘাতী মা, মেয়েও শঙ্কায়

২১ জুন ২০১৮, ০৮:৫০ | আপডেট: ২১ জুন ২০১৮, ০৯:১১

‘পারিবারিক কলহের জের ধরে’ পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় এক মা নিজের দুই সন্তানকে বিষপান করিয়ে নিজেও আত্মঘাতী হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গতকাল বুধবার রাতে উপজেলার চেংঠিহাজরাডাঙ্গা ইউনিয়নের ফুলবাড়ি শেওরাতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন দেবীগঞ্জ উপজেলার চেংঠিহাজরাডাঙ্গা গ্রামের জয়দেব রায়ের স্ত্রী মমতা রানী (৩৫) ও তাঁদের দেড় বছরের ছেলে রাতুল চন্দ্র রায়।

তাঁদের অপর সন্তান সেতু রানীকে (৬) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঠাঁকুরগাও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ দাবি করেছে, পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে জয়দেব রায়ের সঙ্গে তাঁর স্ত্রী মমতা রানীর গতকাল সকালে ও রাতে দুই দফায় ঝগড়া-বিবাদ হয়। রাতে অভিমান করে মমতা নিজে বিষপান করে তাঁর দুই শিশুসন্তানকেও বিষপান করান।

বিষয়টি টের পেয়ে পরিবারের সদস্যরা তিনজনকে দেবীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসক মমতা ও রাতুলকে মৃত ঘোষণা করেন। আর সেতুকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

উপজেলার চেংঠিহাজরাডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান অনিল চন্দ্র সরকার জানান, পারিবারিক কলহের জের ধরে সন্তানদের নিয়ে মমতা বিষপান করেছেন বলে পরিবারের লোকজন ও স্থানীয়রা তাঁকে জানিয়েছেন।

দেবীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় এখনো কেউ লিখিত অভিযোগ দেয়নি। তবে পারিবারিক কলহের জের ধরে বিষপান করে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement