Beta

প্রেমিককে বেঁধে স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

২০ জুন ২০১৮, ২২:২০ | আপডেট: ২০ জুন ২০১৮, ২২:২৫

এম. মুনীর চৌধুরী, নড়াইল

নড়াইল সদর উপজেলায় গতকাল মঙ্গলবার রাতে প্রেমিককে বেঁধে তার প্রেমিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ বুধবার দুপুরে তিনজনের নামে সদর থানায় মামলা হয়েছে।

আসামিরা হলেন সদর উপজেলার হবখালী ইউনিয়নের সুবুদ্ধিডাঙ্গা গ্রামের রফিকুল মিনা (৩০), শাহজালাল মিনা (২৩) ও মাসুম মিনা (২৫)।

মামলার বিবরণে ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাতে প্রেমিককে সঙ্গে নিয়ে যশোর থেকে নড়াইলে আসছিলো অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী। পথে নড়াইলের হবখালী আদর্শ কলেজ এলাকায় অটোবাইক থেকে নেমে যায় তারা। রাত ৯টার দিকে মাসুম মিয়ার দোকানের কাছে পৌঁছালে আট-নয়জন লোক তাদের পথরোধ করে। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের কাছে নেওয়ার কথা বলে তাদের হবখালী বাজারের দিকে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। একপর্যায়ে রফিকুল মিনা, শাহজালাল মিনা ও মাসুম মিনা হবখালী কলেজ এলাকায় প্রেমিককে গাছের বেঁধে রেখে স্কুলছাত্রীকে পাটক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণ করে। সেই সঙ্গে শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম করে।

গণধর্ষণের পর আসামিরা হুমকি দেয়, বিষয়টি কাউকে জানালে তারা এর ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবে। প্রায় তিন ঘণ্টা ধরে গণধর্ষণের পর মেয়েটি অসুস্থ হলে পড়লে যুবকেরা স্কুলছাত্রীকে পাটক্ষেতের মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। রাত ১২টার দিকে প্রেমিকসহ স্থানীয় তিনজন মেয়েটিকে উদ্ধার করে গ্রামের একজনের বাড়িতে নিয়ে যান। পরে পুলিশ এসে তাদের দুজনকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর থানায় নিয়ে যায়।

মেয়েটি নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় নানাবাড়িতে থেকে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ালেখা করছে।

এ ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বলেন, বুধবার দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে মেয়েটির ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement