Beta

বরগুনায় দরিদ্রদের মধ্যে ৭০ হাজার ঈদবস্ত্র বিতরণ

১৩ জুন ২০১৮, ২১:২২

দরিদ্রদের জন্য বিতরণ করতে ৪০ হাজার শাড়ি ও ৩০ হাজার লুঙ্গি আজ বুধবার বরগুনার ইউনিয়নগুলোর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। ছবি : এনটিভি

আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বরগুনায় অসহায় ও দরিদ্র পরিবারের মধ্যে ৭০ হাজার ঈদবস্ত্র বিতরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম এম মশিউর রহমান সিহাবের সহযোগিতায় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের ব্যবস্থাপনায় এই কার্যক্রম  পরিচালিত হচ্ছে।

আজ বুধবার সকালে বরগুনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের কার্যালয়ে এ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বাছাইকৃত দরিদ্র মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রাথমিকভাবে ৪০ হাজার শাড়ি ও ৩০ হাজার লুঙ্গি তালিকাভুক্ত ইউনিয়নগুলোর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক জেলা পরিষদের প্রশাসক আলহাজ মো. জাহাঙ্গীর কবীর।

ঈদবস্ত্র বিতরণ উপলক্ষে দেওয়া বক্তৃতায় উদ্যোক্তা মশিউর রহমান সিহাব জানান, তিনি রাষ্ট্রকে যথাযথভাবে ভ্যাট ও ট্যাক্স দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বৈধপথে ব্যবসা করে আসছেন। প্রতি বছর আয়ের একটি বৃহৎ অংশ তিনি বরগুনা জেলার অসহায়, দরিদ্র মানুষের জন্য ব্যয় করেন। এরই ধারাবাহিকতায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাধ্যমে বরগুনার আমতলী, তালতলী ও সদর উপজেলা মিলিয়ে এবারের ঈদে ৭০ হাজার অসহায় ও দরিদ্র মানুষের মধ্যে শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করা হচ্ছে। 

মশিউর রহমান আরো বলেন, ঈদের এক মাস আগেই ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের সহযোগিতায় প্রকৃত অর্থেই দরিদ্র ও অসহায় পরিবারগুলোর তালিকা করে তাদের একটি করে স্লিপ দেওয়া হয়। সেই অনুযায়ী এখন পর্যায়ক্রমে সবার হাতে এই শাড়ি ও লুঙ্গি তুলে দেওয়া হচ্ছে। শুধু তাই নয়, ঈদকে সামনে রেখে এবার জেলার শতাধিক মসজিদের ঈমামকে আলখাল্লা দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি। এ ছাড়া  দুই শতাধিক পথশিশুকেও দেওয়া হচ্ছে ঈদবস্ত্র।

অনুষ্ঠান উপলক্ষে বক্তৃতাকালে মো. জাহাঙ্গীর কবীর বলেন, সারা বছর ধরে সাহায্য সহযোগিতার আশায় গরিব দুঃখী অসহায় মানুষ তাকিয়ে থাকে ঈদ, কোরবানি ও পূজা-পার্বণগুলোর দিকে। বিভিন্ন নেতা-কর্মীর কাছে তাঁদের চাওয়া-পাওয়া থাকে অনেক বেশি। অনেক সময় সাধ থাকলেও সাধ্য না থাকায় কিছু করা যায় না তাদের জন্য। এই বাস্তবতা দূর করতে আওয়ামী লীগের যে সব সচ্ছল ব্যবসায়ী রয়েছেন নিজেদের যাকাতের অংশ হিসেবে অর্থ বা কাপড় এইসব গরিব মানুষের মধ্যে বিতরণ করার আহ্বান জানান তিনি। তাতে যেমন মানুষের উপকার হয়, নেতা-কর্মীদের জন্যও তা হয় আনন্দের।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরগুনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক সাংসদ মো. দেলোয়ার হোসেন। এ ছাড়া অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরগুনা প্রেসক্লাবের সভাপতি ও প্রবীণ সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন মনোয়ার, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি হুমায়ুন কবীর, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোতালেব মৃধা, বরগুনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মো. ওয়ালী উল্লাহ অলি, বরগুনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি জুবায়ের আদনান অনিকসহ ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, সম্পাদক এবং তৃণমূল আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement