Beta

ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, কোচিংয়ের পরিচালক আটক

১৭ মার্চ ২০১৮, ২১:২৯

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে আটক কাওছারুল ইসলাম টিটুল। ছবি : এনটিভি

গাইবান্ধার সাদুল্যাপুর উপজেলায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার অভিযোগে একটি কোচিং সেন্টারের পরিচালক কাওছারুল ইসলাম টিটুলকে (২৫) আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছেন স্থানীয় লোকজন।

আজ শনিবার দুপুরে সাদুল্যাপুর উপজেলার খোর্দ্দ কোমরপুর ইউনিয়নের গাছুর বাজার এলাকা থেকে টিটুলকে আটক করা হয়। আটক টিটুল খোর্দ্দ কোমরপুর বাজারে অবস্থিত নিজাম উদ্দিন কিন্ডারগার্টেন ও কোচিং সেন্টারের পরিচালক। তাঁর বাড়ি গাইবান্ধা সদর উপজেলার নান্দিনা গ্রামে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, নিজাম উদ্দিন কিন্ডারগার্টেন স্কুলে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত লেখাপড়া করে ওই ছাত্রী। একই সঙ্গে সে স্কুলের কোচিং সেন্টারেও পড়ত। সে এবার অন্য স্কুলে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তি হয়। কোচিংয়ে লেখাপড়ার সময় থেকে কাওছারুল ইসলাম টিটুল তাকে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ ছাড়া স্কুলে যাওয়া আসাসহ মোবাইল ফোনেও তাকে উত্ত্যক্ত করেন টিটুল। গতকাল শুক্রবার রাতে টিটুল ওই ছাত্রীর মোবাইল ফোনে কল দিলে পরিবারের লোকজন বিষয়টি টের পায়। পরে আজ শনিবার সকালে স্থানীয় লোকজন টিটুলকে আটক করে খোর্দ্দ কোমরপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) কার্যালয়ে রাখেন। খবর পেয়ে পুলিশ টিটুলকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

স্কুলছাত্রীর স্বজন ও এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, এর আগেও টিটুল ও তাঁর কোচিংয়ের শিক্ষকরা একাধিক ছাত্রীর সঙ্গে এমন অনৈতিক ঘটনা ঘটায়। এসব ঘটনার কেউ প্রতিবাদ করলে তাঁদের হুমকিও দেওয়া হয়। তাই টিটুলের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

খোর্দ্দ কোমরপুর ইউপি চেয়ারম্যান আরিফুর ইসলাম শামীম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার বিষয়টি জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজন টিটুলকে আটক করে। বিষয়টি আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য টিটুলকে পুলিশের হাতে দেওয়া হয়েছে।

সাদুল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বোরহান উদ্দিন বলেন, টিটুলকে আটক করে থানায় আনা হয়েছে। এছাড়া স্কুলছাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় টিটুলের বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement