Beta

বিএসএফের নির্যাতনে বাংলাদেশি হত্যার অভিযোগ

০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১৫:৫৮

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার শ্রীরামপুর ইউনিয়নের মাস্টারপাড়া সীমান্তে আজ শনিবার ভোরে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) নির্যাতনে এক বাংলাদেশির মুত্যুর অভিযোগ উঠেছে। নিহত বাংলাদেশি সোহেল রানা (২১) পাটগ্রামের বুড়িমারী স্থলবন্দর এলাকার মহসীন আলীর ছেলে।

নিহত সোহেল রানার চাচাতো ভাই আজগর আলী জানান, গরু আনতে সোহেলসহ একদল বাংলাদেশি শুক্রবার রাতে ভারতের অভ্যন্তরে যায়। গরু নিয়ে সেখান থেকে ফেরার পথে দলটি ৬১ কোচবিহার বিএসএফ ব্যাটালিয়নের একটি টহল দলের সামনে পড়ে। এ সময় অন্যরা পালিয়ে দেশে আসতে পারলেও সোহেলকে আটক করে বিএসএফ জওয়ানরা। আটকের পর বিএসএফ তাঁকে বেধড়ক পেটানোর পাশাপাশি নানাভাবে শারীরিক নির্যাতন করে। এতে তিনি অচেতন হয়ে পড়লে আজ ভোরের দিকে সীমান্তের এপারে বাংলাদেশি অংশে ফেলে রেখে যায় বিএসএফ। পরে পালিয়ে আসা বাংলাদেশিরা সোহেলকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে সকালে পাটগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। ঘণ্টাখানেক পর মারা যান সোহেল রানা।

পাটগ্রাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফিরোজ কবির জানান, গরু আনতে গিয়ে সোহেল রানা বিএসএফের

নির্যাতনে মারা গেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে।

লালমনিরহাটে বিজিবির ১৫ ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল গোলাম মোর্শেদ সাংবাদিকদের জানান, সোহেল রানা বিএসএফের নির্যাতনে মারা গেছেন কি না, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement