Beta

এসআইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, গর্ভপাতের মামলা

১৮ জুলাই ২০১৭, ২০:১৮

এম. মুনীর চৌধুরী, নড়াইল
নড়াইলে সাময়িক বরখাস্ত হওয়া পুলিশের এসআই আবদুল করিম। ছবি : সংগৃহীত

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলা এবং গর্ভপাতের ঘটনায় নড়াইলে পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুল করিমের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।
 
গতকাল সোমবার নড়াইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক আবুল বাশার মুন্সীর আদালতে এই মামলা করেন ভুক্তভোগী নারী। আগামী ৩ আগস্টের মধ্যে বিচারিক হাকিম জাহিদ হাসানকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। 

মামলার আরজিতে জানা যায়, সাত মাস আগে কালিয়া থানা সংলগ্ন চাঁদপুর এলাকার এক নারীর সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলেন এসআই আবদুল করিম। একপর্যায়ে ওই নারী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। পুলিশের ওই কর্মকর্তাকে বিয়ের কথা বললে এড়িয়ে যান। পরে চিকিৎসার নামে ইনজেকশন দিয়ে ওই নারীর গর্ভপাত ঘটানো হয়। এ ঘটনায় বিচার চেয়ে ভুক্তভোগী নারী পুলিশ সুপারের কাছে এসআই করিমের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। পরে গত ২০ মে তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। 

এসআই আবদুল করিম নড়াইলের শেখহাটি পুলিশ ক্যাম্পের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (আইসি) ছিলেন। এর আগে কালিয়া থানায় কর্মরত ছিলেন। সাময়িক বরখাস্তের পর তাঁকে নড়াইল পুলিশ লাইনে রাখা হয়। 

Advertisement