Beta

পল্লী চিকিৎসক হত্যা মামলায় রাজীব গান্ধী ৫ দিনের রিমান্ডে

২৭ মার্চ ২০১৭, ২০:৩৮

জেএমবি নেতা জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী। পুরোনো ছবি

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলায় পল্লী চিকিৎসক মাহবুবর রহমান হত্যা মামলায় জেএমবি নেতা জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধীর পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে গাইবান্ধা অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিমের আদালতের বিচারক জয়নাল আবেদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) শফিকুল ইসলাম শফিক জানান, মাহবুবর রহমানকে ২০১৫ সালের ২ জুন বিকেলে জেলার পলাশবাড়ী উপজেলার মনোহরপুর ইউনিয়নের গ্রামে গুলি করে হত্যা করা হয়। এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় করা মামলায় রাজীব গান্ধীকে আজ বিকেলে আদালতে হাজির করে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সদস্যরা। শুনানি শেষে বিচারক পাঁচদিনের রিমান্ড  মঞ্জুর করেন।  

২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল বগুড়ার শেরপুর উপজেলার জুয়ানপুর গ্রামের একটি বাড়িতে জেএমবির বোমা তৈরির কারখানায় বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে দুই জেএমবি সদস্য নিহত হন। এ ঘটনায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। পরে তদন্তকালে ওই ঘটনায় রাজীব গান্ধীর সম্পৃক্ততা পায় পুলিশ।  

অন্যদিকে, ২০১৬ সালের ১৩ জুন গভীর রাতে বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার ভায়েরপুকুর এলাকায় রাজীব গান্ধীর নেতৃত্বে জেএমবি সদস্যরা নাশকতামূলক তৎপরতা চালানোর জন্য গোপন বৈঠকে করে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় রাজীব গান্ধী পালিয়ে গেলেও তাঁর সহযোগীরা ধরা পড়ে। ওই ঘটনায় সন্ত্রাস দমন আইনে মামলা করা হয়। তদন্তকালে ধরাপড়া সহযোগীরা গোপন সভায় রাজীব গান্ধীর উপস্থিতির কথা স্বীকার করেন।

গত বছরের ১ জুলাই রাত ৯টার দিকে রাজধানীর গুলশানে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা। হামলার পর রাতেই তারা ২০ জনকে হত্যা করে। হামলার অন্যতম ‘পরিকল্পনাকারী’ জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী ছিলেন বলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দাবি।

ওই দিন রাতে উদ্ধার অভিযানের সময় বন্দুকধারীদের বোমার আঘাতে নিহত হন পুলিশের দুই কর্মকর্তা। পরের দিন সকালে সেনাবাহিনীর কমান্ডো অভিযানে নিহত হয় পাঁচ হামলাকারী ও রেস্তোরাঁর এক কর্মী। ওই হামলায় মোট ২৯ জন নিহত হয়। জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) এ হামলার দায় স্বীকার করে।

পুলিশের ভাষ্যমতে, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সারা দেশে চালানো সিরিজ বোমা হামলার অন্যতম সমন্বয়কারী হিসেবে বগুড়া আস্তানার দায়িত্বে ছিলেন আবদুল আওয়াল। গ্রেপ্তার রাজীব গান্ধী তখন আবদুল আওয়ালের সঙ্গে তাঁর পাচক হিসেবে কাজ করতেন। সে সময় তিনি জেএমবির বড় নেতাদের নির্দেশ অনুযায়ী সাইকেলে করে বিভিন্ন জায়গায় গোপন চিঠি পৌঁছে দেওয়ার কাজটিও করতেন। মূলত সেই ২০০৪ সাল থেকেই জঙ্গি কার্যক্রমে জড়িয়ে পড়েন এই রাজীব গান্ধী।  রাজীব গান্ধীর বাড়ি গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ভুতমারী ঘাট এলাকায়।

ইউটিউবে এনটিভির জনপ্রিয় সব নাটক দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Advertisement