পড়ার কোনো বিকল্প নেই : হাশেম খান

২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১২:১৫ | আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১৬:০৯

এইচ. এম. মেহেদী হাসান

অমর একুশে গ্রন্থমেলায় সোহরাওয়ার্দী প্রাঙ্গণে দেখা মিলল প্রখ্যাত চিত্রশিল্পী হাশেম খানের সঙ্গে। এনটিভি অনলাইনে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি কথা বলেন বইমেলার নানা দিক নিয়ে।

হাশেম খান বলেন, ‘এবারের বইমেলা ভালো লাগছে। প্রকাশকদের মধ্যে একটা আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। তাঁরা অনেক ভালো ভালো লেখকের লেখা প্রকাশ করছেন এখন, এটা কিন্তু আগে তেমন ছিল না।’

বাংলা একাডেমির প্রাঙ্গণ থেকে বেরিয়ে বইমেলার পরিসর বেড়েছে, স্টল সংখ্যাও বেড়েছে। মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে ঘুরে ঘুরে বই কিনতে পারছে। এ প্রসঙ্গে হাশেম খান বলেন, ‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বইমেলা নিয়ে আসায় আরো ভালো হয়েছে। প্রচুর জায়গা হয়েছে, মানুষ খুব স্বাচ্ছন্দ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থাও সন্তোষজনক।’

বইমেলায় মাসজুড়ে প্রচুর মানুষের সমাগম ঘটে। অসংখ্য বই বিক্রি হয়। বইকে ঘিরে এমন আয়োজন অত্যন্ত ইতিবাচক বলে মনে করেন হাশেম খান। তিনি বলেন, ‘পড়ার কোনো বিকল্প নেই, জানার জন্য পড়তে হবে। আমি লক্ষ করেছি, বিশেষ করে তরুণরা বই কিনছে, যা আমার খুব ভালো লেগেছে।’

সব বয়সী মানুষের ভিড়ই মেলায় রয়েছে। শিশুরা তার মা-বাবার সঙ্গে বইমেলায় আসছে। নিজের পছন্দের বইটি কিনছে। এতে করে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে উঠছে শৈশবেই। প্রসঙ্গে হাশেম খান বলেন, ‘শিশুদের বই পড়ার ক্ষেত্রে উৎসাহিত করতে হবে। তারা যেন কেবল তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর না হয়ে ওঠে। শিশুরা তার মা-বাবার সঙ্গে মেলায় আসছে, এটা খুব ইতিবাচক।’

বইমেলার সফলতার বিষয়ে হাশেম খান বলেন, ‘আমি তো মনে করি, এবারের বইমেলা সফল বইমেলা। এবং যা দু-একটু অভাব কোথাও আছে, তা আগামীতে পূরণ হবে আশা করি।’

অমর একুশে গ্রন্থমেলা ক্রমান্বয়ে আরো উৎসবমুখর হয়ে উঠবে, এমনটাই প্রত্যাশা করেন হাশেম খান।