Beta

মালয়েশিয়ার যে বিজ্ঞাপনে ঝড় উঠেছে বিশ্বে

৩০ জুন ২০১৭, ১৯:১৩

অনলাইন ডেস্ক
ওয়াটসন মালয়েশিয়ার আলোচিত বিজ্ঞাপনের একটি দৃশ্য। ছবি : সংগৃহীত

এশিয়ার বৃহত্তম প্রসাধনসামগ্রী নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘ওয়াটসনস মালয়েশিয়া’র একটি বিজ্ঞাপনে বিশ্বজুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। বিজ্ঞাপনটি লিঙ্গ ও বর্ণবৈষম্যকে প্রকটভাবে তুলে ধরেছে বলে কেউ কেউ অভিযোগ করেছেন। 

১৫ মিনিটের বেশি ওই ভিডিওতে মালয়েশিয়ার ‘দায়াং সেনাংদং’ নামের একটি লোককাহিনী দেখানো হয়েছে। সেখানে দেখা যায়, এক রাজকুমারের মন জয় করার চেষ্টা করছেন কয়েকজন নারী। সবাই একে একে রাজকুমারের দৃষ্টি আকর্ষণ করার চেষ্টা করেন। এর একপর্যায়ে আসে এক নারীর পালা।

ঘোমটায় মুখ ঢাকা ওই নারীর কণ্ঠস্বর শুনেই প্রেমে পড়ে যান রাজকুমার। পরে ঘোমটা সরালেই আঁতকে ওঠেন তিনি। কারণ ওই নারীর ত্বক কুচকুচে কালো। অভিশাপপ্রাপ্ত হয়েই তাঁর এই পরিণতি। এরপর ওই নারী মুখ ধুয়ে আসেন। এতে তাঁর চেহারা ফরসা হয়ে যায়। ভিডিওটির ১০ মিনিট আট সেকেন্ডে দেখা যায় এই দৃশ্য।

ভিডিওটি প্রকাশের পর ক্ষোভ প্রকাশ করেন মালয়েশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষ। ইন্টারনেট ও সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমে শুরু হয় সমালোচনা। এর পরিপ্রেক্ষিতে পরে ওয়াটসনস বিজ্ঞাপনটি সরিয়ে নেয়।

এ বিষয়ে সিনডি গ্যালপ নামে ব্রিটেনের এক বিজ্ঞাপন বিশেষজ্ঞ সংবাদমাধ্যম মামব্রেলা এশিয়াকে বলেন, অচল ওই লোককাহিনী মঞ্চায়ন করে পুরোনো দিনের ধ্যান-ধারণাকে তুলে ধরা হয়েছে। সেখানে দেখানো হয়েছে, পুরুষদের জন্য নারীরা নিজেদের শরীরে পরিবর্তন আনছেন। এর মাধ্যমে লিঙ্গবৈষম্য ফুটে উঠেছে। এ ছাড়া ত্বক কালো হলে কুৎসিত আর সাদা হলেই সুন্দর—বৈষম্যমূলক এই যুক্তি বিজ্ঞাপনে দেখানো হয়েছে।

টুইটারে একজন মন্তব্য করেন, মালয়েশিয়াতে এ ধরনের বিজ্ঞাপন হতাশাজনক।

বিজ্ঞাপনটিকে লজ্জাজনক উল্লেখ করে আরেকজন বলেন, এর মাধ্যমে নারী ও কালোদের প্রতি অসম্মান দেখানো হয়েছে।

Advertisement
Advertisement
0.87467694282532