Beta

যুক্তরাষ্ট্রে ‘সেহরি করে’ ফেরার পথে কিশোরীকে হত্যা

১৯ জুন ২০১৭, ২২:২৪ | আপডেট: ১৯ জুন ২০১৭, ২২:২৫

বিবিসি
নাব্রা হোসেইন

যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যে এক মুসলিম কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার নাম নাব্রা হোসেইন (১৭)। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, নাব্রা ভোরে সেহরির খাবার খেয়ে বাড়ি ফিরছিল। এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এক যুবককে (২২) গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, হাঁটার সময় এক গাড়িচালকের সঙ্গে ঝগড়া হয় নাব্রা ও তার বন্ধুদের। এরপর গাড়ি থেকে বেরিয়ে চালক নাব্রাকে হয়রানি করে।

পুলিশ আরো জানায়, হত্যার কারণ এ পর্যন্ত জানা যায়নি। এ ক্ষেত্রে বিদ্বেষপ্রসূত অপরাধ সংঘটিত হওয়ার তারা প্রমাণ পায়নি।

ওয়াশিংটন পোস্ট জানিয়েছে, নাব্রাসহ চার-পাঁচজন বন্ধু ফাস্টফুডের রেস্তোরাঁ থেকে ফিরছিল। রমজানে ভোরে খাবার (সেহরি) খেতে তারা সেখানে যায়। ভোর থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত তাদের রোজা রাখতে হয়। গ্রিনিচ সময় ভোর ৪টার দিকে নাব্রা ও বন্ধুদের সঙ্গে চালকের বিতণ্ডা হয়।

স্থানীয় সংগঠন অল ডুলস এরিয়া মুসলিম সোসাইটি (অ্যাডামস) জানিয়েছে, তাদের সদস্যরা কিশোর-কিশোরীদের দেখতে পায় এবং বাড়িতে যেতে বলে। কিন্তু এদের একজন পিছিয়ে যায়। পরে কর্তৃপক্ষের কাছে সে নিখোঁজ বলে জানানো হয়।

পুলিশ জানায়, একটি হেলিকপ্টার করে অনুসন্ধান কাজে নেমে পড়ে। একপর্যায়ে ওই এলাকায় একটি কার সন্দেহজনকভাবে চলতে দেখা যায়। এরপর চালক ডারউইন মার্টিনেজকে পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়। বিবৃতিতে পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থল থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরের পুকুরে কিশোরীর লাশ পাওয়া যায়। সঙ্গে বেজবলের ব্যাটও মেলে।

নাব্রার মা সাওসান গাজ্জান বলেন, ‘আমার মনে হয়, তার পোশাক পরার ধরনের সঙ্গে এ ঘটনার সম্পর্ক রয়েছে এবং আসল কথা সে মুসলিম।’

Advertisement
0.82989692687988