Beta

এফবিআইয়ের প্রতিবেদন

ট্রাম্পের ফোনে আড়ি পাতেনি ওবামা প্রশাসন

২১ মার্চ ২০১৭, ০৫:৫৩ | আপডেট: ২১ মার্চ ২০১৭, ১৫:৫১

অনলাইন ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। পুরোনো ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারের সময় তাঁর সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারটি যেন ছিল বিতর্ক তৈরির এক উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। ওবামা সরকারের বিভিন্ন নীতির সমালোচনা ছাড়াও নানা বিষয়ে প্রায়ই বিতর্ক উস্কে দিতেন ট্রাম্প।

তেমনই গত অক্টোবরে ট্রাম্প একবার অভিযোগ করে বলেছিলেন, তাঁর ফোনে নাকি আড়ি পাতে ওবামা প্রশাসন। তবে ওই অভিযোগের সমর্থনে কখনোই কোনো তথ্যপ্রমাণ তুলে ধরেননি ট্রাম্প। এত দিন পরে এসে সেই অভিযোগকে একেবারে ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা (এফবিআই)।

ওই সময় পরপর দুই টুইট বার্তায় ট্রাম্প অভিযোগ করে লিখেছিলেন,‘ ব্যাপারটি ভয়ংকর! মাত্রই আবিষ্কার করলাম, প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ের কয়েক দিন আগে আমার ফোনে আড়ি পাতেন ওবামা। কিন্তু কিছুই পাওয়া যায়নি।’

এর কিছুক্ষণ পরে আরেকটি টুইট বার্তায় ট্রাম্প লিখেন, ‘কতটা শঠ হলে ওবামা পবিত্র এই  নির্বাচনী প্রক্রিয়ার সময় আমার টেলিফোনে আড়ি পাতেন। এটা নিক্সনের ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারির মতো ঘটনা।’

এফবিআইয়ের পরিচালক জেমস কমি স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার মার্কিন কংগ্রেস সদস্যদের হাউস ইন্টেলিজেন্স কমিটির প্যানেলে উপস্থিত হয়ে ওই দুই অভিযোগের জবাব দেন। ওই সময় কমি বলেন, আগের প্রশাসনের টেলিফোনে আড়িপাতা বিষয়ে প্রেসিডেন্ট যে টুইটগুলো করেছেন সেগুলোর প্রতি আমাদের সম্মান রয়েছে। তবে এসব টুইটকে সমর্থনের মতো কোনো তথ্য আমার হাতে নেই।

কমি আরো বলেন, আমাদের বেশ কয়েকটি গোয়েন্দা দল এই সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করেছে, তদন্ত করেছে। কিন্তু আমার কাছে প্রেসিডেন্টের টুইটের সমর্থনে কোনো তথ্য নেই।

Advertisement
0.81123614311218