Beta

স্মার্টফোনে ক্রিকেট ক্যারিয়ার সুপারলিগ গেম

১৯ জুন ২০১৭, ২১:৪৭

অনলাইন ডেস্ক

দেশের বাজারে এসেছে ভিন্ন রকমের মোবাইল ক্রিকেট গেম। যা খেলোয়াড়দের দেবে সুপার পাওয়ার ও একই সঙ্গে তাঁদের অসাধারণ ম্যানেজার ও ক্রিকেটার হতে চ্যালেঞ্জ করে। ক্রিকেট গেম ক্রিকেট ক্যারিয়ার সুপারলিগ বাজারে নিয়ে এসেছে ঢাকার গেম ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি পেচাস গেম স্টুডিও।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি হোটেলে এ বিষয়ে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। আজ সোমবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন পেচাস গেম স্টুডিওর চিফ অপারেটিং অফিসার (সিওও) জাহিদ আহমেদ এবং উপস্থাপক ও মডেল মারিয়া নূর। গেমের নানা বিষয় নিয়ে প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন ডেভেলপার মুনশি সায়িদ হাসনাত ম্যাক্স।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে গেমগুলো খেলা যাবে গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করে। গেমগুলোর বেশকিছু নতুন বৈশিষ্ট্য আছে, যা অন্য গেমগুলোর থেকে আলাদা। যেমন যিনি গেম খেলবেন নিজের মতো করে প্রয়োজনে সাজিয়ে নিতে পারবেন। এ ছাড়া সুপারলিগ বিশ্বের প্রথম এমন ক্রিকেট গেম যেখানে খেলোয়াড়রা পাবেন অন-ফিল্ড প্লেয়ার হিসেবে সুপার পাওয়ার।

পেচাস গেম স্টুডিওর উদ্ভাবনী ক্রিকেট গেমটি স্মার্টফোনের জন্য বাজারে প্রকাশ করেছে জাপাক। আগামীর শ্রেষ্ঠ ২০ গেমের একটি নির্বাচিত হয়েছে পিজিএস। এরপর পিজিএস ও জাপাক একসঙ্গে কাজ করছে।

ক্রিকেট ক্যারিয়ার সুপারলিগ ক্লাব ম্যানেজমেন্ট ও ক্রিকেট ম্যাচ খেলার জন্য অনন্য এক হাইব্রিড গেম। পাশাপাশি এনেছে সুপার শটস ও সুপার বলস।  যখন খেলোয়াড়রা ক্রমাগতভাবে ব্যাট বা বল করে, একটি সুপার মিটার চার্জ আপ হয়। এটা একবার চার্জ হয়ে গেলে একটি সুপার পাওয়ারের শট বা বল ব্যবহার করার সুযোগ থাকে, যার অ্যাকশন যেকোনো হলিউড অ্যাকশন চলচ্চিত্রের জন্য উপযুক্ত হবে।

পেচাস গেম স্টুডিওর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মাইয়াজ এম রহমান বলেন, ‘আমরা সর্বদা স্বপ্ন দেখেছি ক্রিকেটভক্তদের একটি অবিস্মরণীয় মোবাইল ক্রিকেট গেমের অভিজ্ঞতা দিতে, যা আমাদের আবেগকে ডেভেলপার ও ক্রিকেটের অনুরাগী হিসেবে প্রতিফলিত করে। জাপাকের মতো একটি বিখ্যাত প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি কাজ করে আমরা অনেক কিছু শিখতে সক্ষম হয়েছি।’

মাইয়াজ এম রহমান বলেন, ‘পেচাস গেম স্টুডিও উপমহাদেশের মোবাইল গেমস অ্যারাইনার মধ্যে অন্যতম নামি পাবলিশার জাপাকের সঙ্গে অংশীদারিত্ব করতে পেরে আনন্দিত। জাপাকের সঙ্গে পার্টনারশিপের মাধ্যমে এ পর্যন্ত আমাদের সর্বশেষ এবং সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টি করা গেম পৌঁছে দিতে পেরেছি আমরা। আশা করি আপনি এটি উপভোগ করবেন।’

বিস্তারিত জানতে :  www.pechasgamestudios.com

রিলায়েন্স এন্টারটেইনমেন্ট-ডিজিটালের সিইও অমিত খন্ডুজা জানান, ‘আমরা পেচাস গেমস স্টুডিও-এর সঙ্গে অংশীদারিত্বের মাধ্যমে ক্রিকেট ক্যারিয়ায় সুপার লিগ আনতে পেরে অত্যন্ত উত্তেজিত। কারণ এই গেমটিতে থাকা বিভিন্ন গ্রাফিকস ও আকর্ষক দল ব্যবস্থাপনার সুযোগ রয়েছে খেলোয়াড়দের। ক্রিকেট সমর্থকদের ক্রিকেটীয় স্বপ্নগুলোকে ডিজিটালভাবে সত্যি করতে সক্ষম হয়েছি। পেচাস গেম স্টুডিওর সঙ্গে আমাদের অংশীদারিত্ব একটি সুযোগ নতুনরূপে বাংলাদেশ, ভারত ও সারা বিশ্বের এক বিলিয়ন ক্রিকেটভক্তের কাছে মোবাইল ক্রিকেটকে পৌঁছে দেওয়ার।’

Zapak.com, ভারতের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন গেমিং গন্তব্য যেখানে রয়েছে ২৫০০-এর বেশি ফ্রি গেম, ১০ মিলিয়ন নিবন্ধিত ব্যবহারকারী ও প্রতি মাসে দুই মিলিয়ন গেমপ্লে। জাপাক শীর্ষস্থানীয় বিনোদন ও টেলিকম সংস্থা যেমন ইউনিভার্সাল স্টুডিও, কার্টুন নেটওয়ার্ক, এয়ারটেল, ভোডাফোন, আইডিয়া সেলুলারের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করে, যাতে ভারত ও সারা বিশ্ব থেকে অনলাইন আসতে থাকা আগামী বিলিয়ন ব্যবহারকারীরা একটি মজাদার গেমিং অভিজ্ঞতা পায়। বিখ্যাত ক্রিকেট গেমগুলোর মধ্যে থেকে গুজরাট লায়ন্স ২০১৭-এর মতো বলিউডের ব্লকবাস্টার গেমস খেলতে জাপাক একমাত্র গন্তব্য, যেখানে থাকছে একাধিক বিভাগে সীমাহীন গেমস। বিশ্বব্যাপী প্লেয়াররা অনুভব করে উদ্দীপনা, আশ্চর্যজনক উচ্চ স্কোর অর্জন করে, বন্ধুদেরকে চ্যালেঞ্জ করে ও ভারতের বৃহত্তম গেমস কালেকশনের মধ্যে একটিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

জাপাক রিলায়েন্স বিনোদন ডিজিটালের একটি বিভাগ। আরো জানতে, Get GamingTM at www.Zapak.com

গেমটি খেলতে প্রয়োজন : অ্যান্ড্রয়েড চার দশমিক এক জেলি বিন, এক দশমিক পাঁচ জিএইচ ডুয়াল কোর বা ১ দশমিক ২ জিএইচ কোয়াড কোর সিপিইউ ও দুই জিবি র‍্যাম। গেমটি ডাউনলোড করা যাবে গুগল প্লে স্টোর থেকে :  https://play.google.com/store/apps/details?id=com.zapak.cc.superleague&hl=en

Advertisement
Advertisement