জোকোভিচের অনুপ্রেরণা যখন হলিউড-তারকা

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ১৭:৪৭

স্পোর্টস ডেস্ক
একটি অনুষ্ঠানে জেরার্ড বাটলার (বাঁয়ে) ও নোভাক জোকোভিচ। পাশে জোকোভিচের স্ত্রী ইয়েলেনা রিস্তিচ। ছবি : ট্যাটলার ডটকম

গ্রিক পুরাণের একটি কাহিনী অবলম্বনে আট বছর আগে হলিউডে নির্মিত হয়েছিল ‘থ্রি হান্ড্রেড’। মাত্র ৩০০ জন সৈন্য নিয়ে স্পার্টান রাজা লিওনিডাস কীভাবে তিন লাখেরও বেশি সৈন্যের শক্তিতে বলীয়ান পার্সিয়ানদের রুখে দিয়েছিলেন, সেই বীরত্বগাথাই উঠে এসেছিল এই ছবিতে। লিওনিডাসের ভূমিকায় জেরার্ড বাটলারের অনবদ্য অভিনয় চলচ্চিত্রপ্রেমীদের মন কেড়ে নিয়েছিল।

ইউএস ওপেনের ফাইনালে গ্যালারিতে সেই বাটলারকে দেখে দারুণ খুশি নোভাক জোকোভিচ। প্রিয় বন্ধুর সেই কালজয়ী চরিত্র যে তাঁকে অনুপ্রাণিত করেছিল, ট্রফি হাতে নিয়ে সে কথাও জানালেন সার্বিয়ান তারকা।

রজার ফেদেরারকে ৬-৪, ৫-৭, ৬-৪, ৬-৪ গেমে হারিয়ে ইউএস ওপেনে দ্বিতীয় ও সব মিলিয়ে দশম গ্র্যান্ড স্লাম জিতে উচ্ছ্বসিত জোকোভিচ। বিশ্বের এক নম্বর খেলোয়াড়ের আনন্দ বহু গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে গ্যালারিতে বাটলারের উপস্থিতি।

শিরোপা জয়ের মুহূর্তে হলিউড তারকাকে পাশে পেয়ে জোকোভিচের উচ্ছ্বাসভরা মন্তব্য, “আমরা খুব ভালো বন্ধু। দুদিন আগে সে শহরে এলে আমি তাকে কোর্টে আসার আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। আমি ‘থ্রি হান্ড্রেড’ ছবিটা দেখেছি। এটা আমার দেখা অন্যতম অনুপ্রেরণাদায়ী চলচ্চিত্র। খেলাশেষে গ্যালারির দিকে তাকিয়ে তাকেই খুঁজছিলাম। তারপর তাকে পেলাম আর মনে মনে বললাম, ‘হ্যাঁ, এটাই স্পার্টা।’ সে সময় আমার দারুণ লাগছিল।”