Beta

আলোচিত হাথুরু কাল আসছেন ঢাকায়

১৪ নভেম্বর ২০১৭, ২০:৩৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক

চন্ডিকা হাথুরুসিংহের বিদায় অনেকটাই নিশ্চত হয়ে গেছে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের প্রধান কোচের পদে থাকতে চান না বলে এরই মধ্যে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। সম্পর্ক চুকেবুকে যাওয়ার আগে বিসিবি ডেকে পাঠিয়েছে এই শ্রীলঙ্কান কোচকে। কর্মকর্তারা কথা বলতে চান তাঁর সঙ্গে। শুনতে চান তাঁর কথাও। সে লক্ষ্যে আগামীকাল বুধবার ঢাকায় পা রাখার কথা সদ্য পদত্যাগী এই কোচের।

হথুরুসিংহের পদত্যাগ পত্র গ্রহণ করা হবে কিনা, নাকি আবার তাঁকে ফেরানোর চেষ্টা করা হবে সেটা অবশ্য পরিষ্কার করে কিছু বলছে না বিসিবি কর্মকর্তারা। সম্প্রতি বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান বলেছিলেন, 'থাকতে না চাইলে তাঁকে জোর করে রাখা হবে না।' সে ক্ষেত্রে নতুন কোচের খোঁজে নামবে ইঙ্গিত দিয়েছে তারা।

অবশ্য শ্রীলঙ্কান সংবাদ মাধ্যমগুলো বলেছে, হাথুরুসিংহের সঙ্গে কথা অনেকাটাই পাকাপাকি হয়ে গেছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের। বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক শেষ হয়ে গেলেই দেশটির জাতীয় দলের সঙ্গে যোগ দেবেন তিনি।

এরই মধ্যে শোনা যাচ্ছে, হাথুরুকে নাকি প্রস্তাব দেওয়া হবে ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত থেকে যাওয়ার। আর তা যদি না হয় অন্তত আগামী জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজ পর্যন্ত থাকার। তবে সিদ্ধান্ত জানতে আরো দু'একদিন অপেক্ষা করতে হবে।

তবে এই লঙ্কান কোচের অধীনে বাংলাদেশ যে দারুণ সাফল্য পাচ্ছে, সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। তাঁর অধীনে ঘরের মাঠে টানা পাঁচটি ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে লাল-সবুজের দল। ভারত, পাকিস্তান, দক্ষিণ আফ্রিকার মতো দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়, বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা, চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সেমিফাইনালে উঠেছিল লাল-সবুজের দল। তা ছাড়া টেস্টে প্রথমবারের মতো ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও শ্রীলঙ্কাকে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দলকে এসব দারুণ সাফল্য এনে দেওয়ায় দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৯ সাল চুক্তি করা হয়েছিল হাথুরুর সঙ্গে। কিন্তু মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রায় দেড় বছর আগে সরে দাঁড়াচ্ছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে তিনি শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের কোচ হতে পারেন। শ্রীলঙ্কান সংবাদমাধ্যমের খবর, তাঁর সঙ্গে নাকি চুক্তি প্রায় নিশ্চিত।

Advertisement
0.81634497642517